Exim Bank
ঢাকা, সোমবার ২১ মে, ২০১৮
iftar
বিজ্ঞাপন দিন      

দেবদাসের সঙ্গে পার্বতী ও চন্দ্রমুখীর সম্পর্কটা কেমন?

 নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৪০, ১৬ মে ২০১৮

৩২৬ বার পঠিত

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

জনপ্রিয় উপন্যাস ‘দেবদাস’। বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বহুল আলোচিত এই উপন্যাস নিয়ে এর আগেও নানা দেশে নানা ভাষায় নির্মিত হয়েছে নাটক-সিনেমা ও গান। আবারো নতুন মোড়কে নির্মাণ হচ্ছে এটি।

আসন্ন ঈদের টেলিফিল্ম হিসেবে ‘দেবদাস’ নির্মাণ করছেন জাকারিয়া সৌখিন। আর এখানে প্রধান তিন চরিত্রে দেখা যাবে অপূর্ব, মেহজাবিন এবং জাকিয়া বারী মমকে। তবে জানা গেছে, পুরো গল্পটি নির্মিত হবে বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে। মূল গল্প ঠিক রেখে সবকিছুতেই পরিবর্তন আসবে।

নতুন ভাবনার এই ‘দেবদাস’র নাম রাখা হয়েছে ‘জলসাঘর’। চরিত্রগুলোর নামও পাল্টে গেছে। দেবদাসের নাম রাখা হয়েছে পবন, পার্বতীর নাম অবনী আর চন্দ্রমুখীর নাম চারুলতা।

এ বিষয়ে নির্মাতা সৌখিন বলেন, দেবদাসের মতো প্রেমের উপন্যাস কখনো পুরানো হয় না। গল্পের মূল বিষয়টি সবসময়ই নতুন। তাই বর্তমান সময়ে গল্পটিকে ভেবেছি। আর বর্তমান সময়কে প্রাধান্য দিতে গিয়েই কিছু বিষয় পাল্টে গেছে। কিন্তু গল্পের মূল আবেগ ঠিক আছে। বলা যেতে পারে ‘দেবদাস’কে নিয়ে এটি একটি নীরিক্ষামূলক কাজ হতে যাচ্ছে।

‘জলসাঘর’এ দুটো বিষয় নিয়ে কাজ করা হয়েছে। দেবদাস বা পবনের সম্পর্কের ধরন এবং তার জীবন। দেবদাসের সঙ্গে পার্বতী এবং চন্দ্রমুখীর সম্পর্কটা আসলে ‘ব্যাথা’র। সে কারো সঙ্গেই ‘সুখে’র সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারেনি, গড়েছে ব্যাথার সম্পর্ক। আর এ কারণেই তার জীবনটা জলসাঘরেরই মতো।

এতে মেহজাবিন অভিনয় করছেন পার্বতী বা অবনী চরিত্রে। আর মম চন্দ্রমুখী বা চারুলতা।

নির্মাতা জাকারিয়া সৌখিন জানান, শিগগির ‘জলসাঘর’র শুটিং শুরু হবে। আর ঈদে এটি বাংলাভিশনে প্রচার হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআই

সর্বাধিক পঠিত