.ঢাকা, সোমবার   ২২ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৮ ১৪২৬,   ১৬ শা'বান ১৪৪০

দূতাবাস না সরাতে প্যারাগুয়েকে যুক্তরাষ্ট্রের চাপ

 প্রকাশিত: ১৯:৩২ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৯:৩২ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এখনো বন্ধ প্যারাগুয়ের দূতাবাস

এখনো বন্ধ প্যারাগুয়ের দূতাবাস

ইসরায়েলি দূতাবাস জেরুজালেম থেকে তেল আবিবে না সরাতে প্যারাগুয়ে সরকারকে চাপ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। দূতাবাস স্থানান্তরের সিদ্ধান্তটি পুনর্বিবেচনা করতে প্যারাগুয়ের প্রেসিডেন্ট মারিও আব্দো বেনিতেজকে আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্যারাগুয়ের ‘ঐতিহাসিক’ সম্পর্কের কথা মনে করিয়ে দিয়ে বেনিতেজকে রাজি করানোর চেষ্টা চলছে। হোয়াইট হাউসের বিবৃতিকে উদ্ধৃত করে টাইমস অব ইসরায়েলের করা এক প্রতিবেদন থেকে এ কথা জানা গেছে।

হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ঐতিহাসিক সম্পর্কের প্রতীক হিসেবে পূর্বে দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নিয়েছিল প্যারাগুয়ে। দেশটির পূর্বের এ অঙ্গীকারটি অনুসরণ করতে প্রেসিডেন্ট বেনিতেজকে দৃঢ়ভাবে উৎসাহিত করেছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।’

ইসরায়েলের একটি বেসরকারি সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, ইসরায়েলের মিত্র দেশ যুক্তরাষ্ট্র প্যারাগুয়েকে বোঝানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এরইমধ্যে প্যারাগুয়ের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট। বলেছেন, জেরুজালেমে দূতাবাস থাকলে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের সঙ্গে প্যারাগুয়ের সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হবে।

পেন্সের সঙ্গে ফোনালাপে ইসরায়েলের সঙ্গে প্যারাগুয়ে ‘দীর্ঘস্থায়ী সমাপর্ক বজায়’ রেখেছে বলে উল্লেখ করেন বেনিতেজ। ইসরায়েল-ফিলিস্তিনি সংঘাত নিরসনে একটি টেকসই সমাধান বের করতে সমন্বিতভাবে কাজ করার ব্যাপারেও সম্মতি জানিয়েছেন তিনি। তবে দূতাবাস সরানোর সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করতে পেন্সের অনুরোধের প্রতি বেনিতেজ সাড়া দিয়েছেন কিনা সে ব্যাপারে জানা যায়নি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসজেড