.ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৬ ১৪২৬,   ১৩ শা'বান ১৪৪০

দীপিকার বর্তমান ও অতীত!

সৈয়েদা সাদিয়া

 প্রকাশিত: ০৯:৫৪ ৭ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৭:৪৬ ৭ ডিসেম্বর ২০১৮

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বলিউড তারকা দীপিকা পাড়ুকোন। সম্প্রতি তিনি আরেক ভারতীয় তারকা রণবীর সিংয়ের সঙ্গে দীর্ঘদিনের প্রণয়কে পরিণয়ে রূপ দিয়েছেন। তার সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন বলিউড তারকা দীপিকা পাড়ুকোন।

এর আগে, দম্পতি এই জুটির সম্পর্কের শুরুটা হয় ২০১৩ সালে সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘গলিয়োঁ কি রাসলীলা; রাম-লীলা’ ছবির কাজের সময়। এরপর থেকে আলোচনা যেন শেষই হয়নি রণবীর-দীপিকার। একের পর এক খবরের শিরোনাম হয়েছেন তারা।

তাছাড়া ‘রাম-লীলা’ ছবিতে তাদের একাধিক ঘনিষ্ঠ চুম্বন সকলকে ভাবিয়ে তুলেছিল। এরপর তারা আরো বেশ কিছু ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেন। চলতি বছরও এই জুটি একসঙ্গে অভিনয় করেন ‘পদ্মাবতী’ ছবিতে। মূলত বিয়ের আগে তাদের প্রেম নিয়ে আলোচনা কম হয়নি।

কিন্তু যার সঙ্গে দীপিকার বিয়ে হলো, এটা কিন্তু তার প্রথম প্রেম নয়। তিনি আরো একাধিকবার প্রেমে পড়েছিলেন। তার সে প্রেমের খবর গণমাধ্যমেও বেশ চর্চিত হয়েছে। আজ ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের জানাবো তার পুরানো প্রেমের গল্প, যাদের সঙ্গে দীপিকার সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন।

চলুন দেখে নেয়া যাক কারা ছিলেন দীপিকার প্রেমিকদের তালিকায়-

নীহার পান্ডে

দীপিকার প্রথম প্রেমিকের নাম নীহার পান্ডে। তিনি মডেলিং করতে এসে দীপিকার প্রেমে জড়ান। সে সময় দু’জনের কেউই ততটা জনপ্রিয় ছিলেন না। এরপর টপ মডেল হয়ে দীপিকা বলিউডে পা রাখেন। তখনই তাদের সম্পর্কে চিড় ধরে। সেই সময় নীহার আরো একজন মডেল-অভিনেত্রী গহর খানের সঙ্গে প্রেমে জড়ান।

কিন্তু সেই সম্পর্কও বেশীদিন টেকেনি, অল্প দিনেই ভেঙে যায়। কঙ্গনা রনৌত অভিনীত আসন্ন ‘মণিকর্নিকা’ ছবিতে অভিষেক হয় নীহারের। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নীহারের কাছে জানতে চাওয়া হয়, দীপিকার সাবেক বললে তার কেমন লাগে? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এতে বোধহয় আমার রাগ করা উচিত। কিন্তু আমার কিছুই মনে হয় না। এমনকী আমার প্রথম ছবির প্রেস নোটেও আমাকে দীপিকার এক্স বয়ফ্রেন্ড বলে সম্বোধন করা হয়েছে।

উপেন প্যাটেল

দীপিকার জীবনে নীহারের পর গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয় আরেক মডেলের নাম। তিনি উপেন প্যাটেল। তিনি দীপিকার সঙ্গে  স্টেজে কাজ করতেন। হঠাৎ করেই প্যাটেলের জন্য বিভিন্ন এজেন্সি থেকে মডেলিং এর সুযোগ আসতে লাগলো। এসব দেখেই হয়তো দীপিকা-নীহারের সঙ্গে দূরত্ব বাড়িয়ে প্যাটেলের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করেন। তিনিই মূলত দীপিকাকে সেই সময় অনেক বড় বড় বিজ্ঞাপন নির্মাতার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন। সে সুবাধে দীপিকা আজ এগিয়ে গেলেন, তবে বেশ ভালো করতে পারেননি প্যাটেল।

যুবরাজ সিং

একসময় বেশ গুঞ্জন ছিল, ভারতীয় ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং যখন ভারতের রোল মডেল হয়ে উঠছেন, তখনই যুবরাজের প্রেমে পড়েন দীপিকা। তাদেরকে একসঙ্গে বিভিন্ন পার্টিতে দেখা গেছে, তাছাড়া ডিনারেও যেতেন তারা। তবে যুবরাজের সঙ্গেও সম্পর্ক খুব বেশি দিন টেকেনি দীপিকার। দুজন দুই পথে চলে যান।

সিদ্ধার্থ মালিয়া

সিদ্ধার্থ মালিয়া। আইপিএল-এর দল ‘রয়্যাল চ্যালেঞ্জ ব্যাঙ্গালুরু’র মালিক বিজয় মালিয়ার ছেলে তিনি। এক পার্টিতে দীপিকার সঙ্গে সিদ্ধার্থের পরিচয় হয়। এর কয়েকদিনের মধ্যেই দীপিকা আর সিদ্ধার্থকে একসঙ্গে বহু জায়গায় দেখা যায়। আইপিএল-এর ম্যাচ চলাকালীন সময়ে দীপিকা আর সিদ্ধার্থকে চুমু খেতেও দেখা গেছে। প্রায় দু’বছর চুটিয়ে প্রেম করেছেন দু’জন। তবে বাবা-মার বড় লোকের ছেলে সিদ্ধার্থ ওইসময় বেশীদিন দীপিকাকে তার সঙ্গে রাখেননি। ছেড়ে চলে যান তিনি। এদিকে একা হয়ে যান দীপিকা।

রণবীর কাপুর

সিদ্ধার্থ মালিয়াকে হারিয়ে অনেকটা ভেঙে পড়েন দীপিকা। এই সময় তার জীবনে আসে বলিউড চকলেট বয় রণবীর কাপুর। ২০০৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বাঁচনা এ হাসিনো’ ছবির শুটিং চলাকালে রণবীরের প্রেমে পড়েন দীপিকা। তিনি প্রেমিকদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী রণবীরকে ভালোবাসতেন, যা অনেক সময় প্রমাণও পেয়েছে দীপিকার কর্মকাণ্ডে।

ওইসময় নিজের ঘাড়ে রণবীরের নামের আদ্যাক্ষরের ট্যাটুও করেছিলেন দীপিকা। প্রেমের কথা প্রকাশ্যে স্বীকারও করেছেন। প্রায় দু’বছর চুটিয়ে প্রেম করার পর দু’জনের সম্পর্কে ফাটল ধরে। অবশ্য সম্পর্ক ভাঙার পেছনে বরাবরই রণবীর কাপুরকেই দায়ী করেছেন দীপিকা। রণবীর নাকি তার সঙ্গে খেলা করেছেন। একাধিক মেয়ের সঙ্গে নাকি তার সম্পর্ক ছিল। তাছাড়া বেশ কয়েকবার নাকি তিনি রণবীরের বিছনায় অন্য নারীকে পেয়েছেন। তাছাড়া রণবীরকে নাকি তিনি একাধিকবার ক্ষমাও করে দিয়েছেন। এত কিছুর পরও নাকি রণবীর পরিবর্তন হয়নি। তাই তাকে ছেড়ে এসেছিলেন দীপিকা। তবে রণবীর সিংয়ের সঙ্গে বিয়ের পর সেই ট্যাটু মুছে ফেলে ঘাড় থেকে কাপুরের বোঝা নামিয়েছেন দীপিকা।

আরো পড়ুনঃ আমি এখন রাতের পাখি, ইনকামও অনেক বেশী: স্বস্তিকা

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ