দাবদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন

ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৬ ১৪২৬,   ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

দাবদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন

 প্রকাশিত: ১৭:১৯ ২০ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ১৭:১৯ ২০ জুলাই ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সারাদেশের ন্যায় গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে হবিগঞ্জের জনজীবন। আগুন ঝরা রোদে হাঁপিয়ে উঠছে প্রাণিকুল। তীব্র গরমে হাপিত্যেশ করছে সবাই। গরমের তীব্রতা থাকায় বেড়েছে লেবুর শরবত ও ডাবের কদর। তীব্র গরমের কারণে ফার্মেসিগুলোতে খাবার স্যালাইনেও সংকট দেখা দিয়েছে। অনেক ফার্মেসিতে আবার খাবার স্যালাইন বিক্রি হচ্ছে অতিরিক্ত দামে।

শ্রাবণ মাসের শুরু থেকেই প্রচণ্ড গরম অব্যাহত রয়েছে। ফলে গরমে হাঁপিয়ে উঠেছে হবিগঞ্জ জেলার সব বয়সী মানুষ।

হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসক দেবাশীষ রায় জানান, কিছু সময়ের জন্য তৃষ্ণা দূর হলেও এসব পানীয় থেকে পানিবাহিত রোগ টাইফয়েড, কলেরা, আমাশয় ও জন্ডিসসহ বিভিন্ন রোগ ছড়াতে পারে। এছাড়াও ময়লা পানি থেকে বানানো যেসব বরফ ব্যবহার করা হয়, তা স্বাস্থ্যসম্মত নয়। গরমে খবার স্যালাইনের পাশাপাশি বেশি বেশি করে পানি পান করার জন্যও বলেন তিনি।

ডাব বিক্রতা জসিম আহমেদ জানান, গরমে ডাবের চাহিদা বেড়েছে তবে এবারে ডাবের উৎপাদন কম হওয়ায় গত বছরের তুলনায় এবারে ডাবের দাম অনেক বেশি। বড় ও মাঝারি আকারের একটি ডাব বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকা।

শরবত বিক্রেতা উজ্বল মিয়া জানান, গত দুই তিন দিন ধরে বিক্রি বেড়েছে। বেল, লেবু ও আখের গুড়ের এক গ্লাস শরবত বিক্রি হচ্ছে ৫ টাকা। বেল, গুড়, পেপে ও জুস মিশ্রিত এক গ্লাস শরবত বিক্রি হয় ১০ টাকা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআর