দাঁতে জমে থাকা ব্যাকটেরিয়া-ভাইরাস দূর করে এই ফলের রস

ঢাকা, বুধবার   ০৩ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭,   ১০ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

দাঁতে জমে থাকা ব্যাকটেরিয়া-ভাইরাস দূর করে এই ফলের রস

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:২৯ ২৩ মে ২০২০  

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

বেদানা বা ডালিম দেশীয় ফলগুলোর মধ্যে অন্যতম। খুবই সহজলভ্য এই ফলটি পাওয়া যায় বছরজুড়ে। তবে অনেকেই আছেন টুকটুকে লাল রঙা ফলটি খেতে পছন্দ করেন না। তবে জানেন কি? বেদানার রয়েছে নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা। 

বেদানা বলতে গেলে প্রায় চর্বিমুক্ত একটি ফল। ডালিম কার্যকরীভাবে ভিটামিন সি, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস ও জিংক দ্বারা সমৃদ্ধ। এছাড়াও বেদানা ভিটামিন বি কমপ্লেক্স যেমন- থায়ামিন, রাইবোফ্লাবিন, নিয়াসিন এবং আয়রনের অন্যান্য উপাদানের ভালো উৎস। 

বেদানা আয়ুর্বেদিক ও ইউনানী চিকিৎসায় পথ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। বেদানা গাছের শিকড়, ছাল ও ফলের খোসা দিয়ে আমাশয় ও উদরাময় রোগের ওষুধ তৈরি হয়। এর অন্যান্য স্বাস্থ্য উপকারিতাগুলো জেনে নিন- 

রক্তস্বল্পতা দূর করে 

রক্তাল্পতা বা অ্যানিমিয়ায় অনেকেই ভোগেন। বিশেষ করে নারীরা খুব বেশি সমস্যায় পড়েন। রক্তস্বল্পতা দূর করার জন্য বেদানাতে রয়েছে প্রচুর আয়রন। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে প্রতিদিন সকালে বেদানার রস খেতে পারেন। এতে থাকা আয়রন আপনার শরীরের আয়রনের ঘাটতি অনেকটাই কমিয়ে দিতে পারে।

কোষ্টকাঠিন্য দূর

সারাদিন পেট গুরগুর, গ্যাস, পেট ভার হয়ে থাকা, সেই সঙ্গে কোষ্টকাঠিন্যের সমস্যা রয়েছে অনেকের। বেদানার রসেই এসবের সমাধান মিলতে পারে। খালি পেটে রোজ এই রস খান, এতে থাকা ফাইবার আপনার কোষ্টকাঠিন্য সহজেই দূর করে দেবে।

ত্বক সুস্থ ও উজ্জ্বল রাখতে

বেদানা ত্বক সুস্থ রাখতে অনেক কার্যকরী। বেদানা বা ডালিম পোমেগ্র্যানেট অয়েল ময়শ্চারাইজার হিসেবে ভালো কাজ করে। ত্বকের ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণকে প্রতিরোধ তৈরি করে থাকে। ফলিক অ্যাসিড, ভিটামিন সি, সাইট্রিক আসিড, ট্যানিন সমৃদ্ধ বেদানা ত্বকের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে বিশেষ উপকারী।

স্কিন ক্যান্সার প্রতিরোধে

ডালিম বা বেদানার রস ক্যান্সার প্রতিরোধে অনেক উপকারী। এক গবেষণায় দেখা গেছে, স্কিন ক্যান্সার ও প্রস্টেট ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে বেদানার রস সাহায্য করে।   

দাঁতের সমস্যা দূর করে 

দাঁতের সমস্যার ক্ষেত্রে ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস খুব বড় একটা জায়গা দখল করে থাকে। এই ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস বেদানার রসে দূর করা সম্ভব। তাই যাদের দাঁতের সমস্যা থাকে, তারা প্রতিদিন বেদানার রস খেতেই পারেন। পায়োরিয়ার মতো নাছোড় সমস্যাও দূরে যায় এই বেদানার রসেই। তাই যাদের মুখে বিশ্রী গন্ধ হয় তারাও এই রস খান।

হাড় মজবুত করে

বেদানার রসে থাকা ক্যালসিয়াম আপনার হাড় শক্ত করতে সহায়তা করে। শরীরে ক্যালসিয়ামের মাত্রা কমে গেলে একটুতেই হয় তো হাঁপিয়ে যেতে পারেন আপনি।  খালি পেটে বেদানার রস খেলে তা থেকে সহজেই শরীরের প্রয়োজনীয় ক্যালসিয়াম পাবেন আপনি। হাড়ও মজবুত হবে তাতে। অতএব এক ফলে যখন এতগুলো সুফল পাচ্ছেন, রোজ দিন শুরু করুন বেদানার রসে চুমুক দিয়েই।

সূত্র: ইন্ডিয়ানএক্সপ্রেস

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস