ইন্দোনেশিয়ায় সুনামিতে নিখোঁজ ৫০০০

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৩ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪২৬,   ১৭ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

ইন্দোনেশিয়ায় সুনামিতে নিখোঁজ ৫০০০

 প্রকাশিত: ১৮:১৯ ৭ অক্টোবর ২০১৮   আপডেট: ১৮:১৯ ৭ অক্টোবর ২০১৮

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পের পর সুনামির আঘাতে ৫ হাজারেরও বেশি মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন বলে দুর্যোগ কর্তৃপক্ষ বলছে।

রোববার দেশটির সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানায়।

বার্তাসংস্থা এএফপি’র খবরে বলা হয়, কর্তৃপক্ষের বক্তব্য থেকে ধারণা করা হচ্ছে, বর্তমানে নিহত ও নিখোঁজ মানুষের যে সংখ্যা পাওয়া যাচ্ছে, তার চেয়ে অনেক বেশি মানুষ দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ কর্তৃপক্ষ বলছে, গত ২৮ সেপ্টেম্বর ৭.৫ মাত্রার ভূমিকম্পের পর সুনামি হলে, ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৭৬৩টি মৃতদেহ উদ্ধার করেছে।

কিন্তু, দুর্যোগে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পালুর পেটাবু ও বালারোয়া এলাকায় সম্ভবত আরো হাজার হাজার মানুষ হতাহত হয়েছেন। ওই এলাকা দুইটির মাটি নরম হয়ে পুরো এলাকাকেই গ্রাস করে নিয়েছে।

বালারোয়া ও পেটাবুর গ্রামপ্রধানদের বরাতে সরকারি মুখপাত্র সুতোপো পুরয়ো নুগ্রোহো জানান, সেখানকার প্রায় ৫ হাজার মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘কর্মকর্তারা সেখানে এখনো বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছেন এবং তথ্য সংগ্রহ করছেন। ভূমিধস, গলিত মাটি ও কাদায় আটকে পড়া মানুষদের সংখ্যা নিশ্চিত হওয়া সহজ নয়।’

নুগ্রোহো জানান, ১১ অক্টোবরের পর থেকে উদ্ধার কাজ বন্ধ করে দেয়া হবে। এরপর কারো তথ্য পাওয়া না গেলে তাকে নিখোঁজ বা মৃত বলে ধরে নেয়া হবে।

সুনামির পর প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়েছিল, পালুর ধ্বংসস্তূপের নিচে প্রায় এক হাজার মানুষ চাপা পড়েছেন। কিন্তু, এখন দেখা যাচ্ছে, নিখোঁজের সংখ্যা তার চেয়ে কয়েক গুণ বেশি।

ডেইলি বাংলাদেশ/সালি

 

Best Electronics