Alexa থানার মধ্যেই নিগ্রহের শিকার মহিলা পুলিশ!

ঢাকা, সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ১ ১৪২৬,   ১৬ মুহররম ১৪৪১

Akash

থানার মধ্যেই নিগ্রহের শিকার মহিলা পুলিশ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৫৬ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৭:৪০ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

এবার থানার মধ্যেই আক্রন্ত হয়েছেন এক কর্তব্যরত মহিলা পুলিশ কর্মী। ভাড়টে ও বাড়িরমালিকের বিবাদের জেরে এই নিগ্রহের সূত্রপাত। বুধবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের দক্ষিণ ২৪ পরগনার হরিবেদপুর থানায়।

পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার রাতে বাড়িভাড়া সংক্রান্ত বিবাদের জেরে থানায় আসে বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটে উভয়পক্ষ। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে যে থানায় অভিযোগ জানাতে এসে, ফের তর্কে জড়িয়ে পরে তারা। সেই তর্ক থামাতে গেলেই উভয়ের দ্বারাই আক্রান্ত হন ওই মহিলা পুলিশ কর্মী।

অভিযোগ বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটে দুই পক্ষের লোকেরা ওই কর্তব্যরত মহিলা পুলিশ কর্মীকে মারধর করেন। এই ঘটনায় ইতোমধ্যে দুই পক্ষের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে হরিদেবপুর থানা পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে থানার সিসিটিভি ফুটেজ।

গত ৮ সেপ্টেম্বর, আসানসোলের হীরাপুর থানার ভালাডিহা গ্রামে চোর সন্দেহে গণপিটুনি। উদ্ধার করতে গিয়ে আক্রান্ত হয় পুলিশ। পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর। ইটের ঘায়ে ও মারধরের জেরে আহত ৩ সিভিক ভলান্টিয়ার।

তার আগে ৬ সেপ্টেম্বর, কুসংস্কারে বাধা দেওয়ায় মাথা ফাটে ওসির। মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ায় ক্যানসারের ওষুধ হিসাবে 'দই পড়া' খাওয়ানোর অভিযোগ। বেআইনি ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ গ্রামবাসীদের। বিক্ষোভকারীদের হঠাতে গিয়ে আক্রান্ত হরিহরপাড়ার ওসি সহ ১০ পুলিশকর্মী।

৩ সেপ্টেম্বর, জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জে চোর সন্দেহে বেধড়ক মারা হল এক ব্যক্তিকে। ঘটনাস্থলে গিয়ে আক্রান্ত হল পুলিশ। ভাঙচুর করা হল পুলিশের গাড়ি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএস