Alexa থাইল্যান্ডের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে বিভ্রান্তি 

ঢাকা, বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ২ ১৪২৬,   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪০

থাইল্যান্ডের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে বিভ্রান্তি 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২৭ ২৫ মার্চ ২০১৯   আপডেট: ১৬:৫৯ ২৫ মার্চ ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দীর্ঘ ৫ বছরের সেনা শাষণের পর রোববার থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয়েছে দেশটির বহু প্রতিক্ষিত সাধারণ নির্বাচন। রোববার বিকেলে ভোটগ্রহণ শেষে চলছে ভোট গণনা। 

দেশটির নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত দেশজুড়ে মোট কেন্দ্রের প্রায় ৯০ শতাংশ কেন্দ্র থেকে ফলাফল পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত সর্বশেষ ফলাফল অনুযায়ী সরকার গঠনে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে রয়েছে দেশটির সেনা সমর্থিত দল পালাং প্রাচা রাথ পার্টি। দলটির প্রধান হলেন দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও সাবেক সেনা প্রধান প্রায়ুত চান-ও-চা।

পালাং প্রাচা রাথ পার্টি এখন পর্যন্ত পেয়েছে প্রায় ৭০ লাখ ৬০ হাজার ভোট। তাদের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পিউ থাই পার্টি তাদের থেকে প্রায় ৫ লাখ ভোটে পিছিয়ে রয়েছে। এ দলটি বর্তমানে নির্বাসনে থাকা দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রাপন্থী।

২০০১ সাল থেকে এখন পর্যন্ত দেশটির অনুষ্ঠিত সব নির্বাচনে থাকসিন পন্থী দলগুলোই জয়লাভ করেছে।
তবে রোববারে অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনটিকে কেন্দ্র করে এরইমধ্যে বেশ বিশৃঙ্খলা ও বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। দেশটির বিভিন্ন নির্বাচনী কেন্দ্রে অনিয়ম ও ত্রুটিপূর্ণ তথ্য সরবরাহের খবর পাওয়া গেছে। নির্বাচন কমিশনের বিভিন্ন কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে দেশটির বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম যে তথ্য প্রকাশ করেছে সেগুলোর মধ্যেও ব্যাপক অসঙ্গতি রয়েছে।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির নির্বাচন কমিশন কর্তৃক প্রাথমিক ফলাফল ঘোষণার কথা থাকলেও তারা সেটি বাতিল করে ফলাফল ঘোষণার তারিখ ৯ মে পর্যন্ত পিছিয়ে দিয়েছে।

২০১৪ সালে সামরিক অভ্যুত্থান ঘটিয়ে থাকসিন সিনাওয়াত্রার বোন ইংলাক সিনাওয়াত্রার কাছ থেকে ক্ষমতা দখল করে ছিলেন দেশটির তৎকালিন সেনা প্রধান প্রায়ুত চান-ও-চা। এ সামরিক অভ্যুত্থানের ৫ বছর পর দেশটিতে ফের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো। 

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী/এসআই