তৎকালীন সরকার আমাকে কোনোভাবেই ফিরতে অনুমতি দেয়নি: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, রোববার   ২০ জুন ২০২১,   আষাঢ় ৭ ১৪২৮,   ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

তৎকালীন সরকার আমাকে কোনোভাবেই ফিরতে অনুমতি দেয়নি: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫১ ১৭ মে ২০২১   আপডেট: ১৭:১৫ ১৭ মে ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা- ফাইল ফটো

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা- ফাইল ফটো

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশি-বিদেশি নানা প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে বাংলাদেশ নিজেকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে।

তিনি বলেন, আমরা নিজেদেরকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছি। দেশি-বিদেশি নানা বাধা জয় করে আমরা এই অবস্থানে এসেছি।

বাংলাদেশ সচিবালয়ে সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত সাপ্তাহিক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি তার বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দেন।

তিনি বাংলাদেশকে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

‘বাংলাদেশ এখন স্বাধীন এবং এটি স্বাধীন থাকবে। আমরা এটিকে জাতির পিতার সোনার বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলব’, তিনি পুনরায় নিশ্চিত করেন।

শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করেন, বাংলাদেশ এখন যেখানে দাঁড়িয়েছে, সেখান থেকে আগামী দিনে আরো এগিয়ে যাবে।

তার ৪০তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস সম্পর্কে কথা বলার সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি সমস্ত প্রতিকূলতা ও বাধা পেরিয়ে স্বদেশে ফিরে এসেছিলেন।

‘অনেক বিধিনিষেধ ছিল ... তৎকালীন সরকার আমাকে কোনোভাবেই ফিরতে অনুমতি দেয়নি, আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র চলেছে’, তিনি স্মরণ করেন।

আজ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ৪০তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। ১৯৮১ সালের ১৭ মে তিনি দেশে ফিরে আসেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পরিবারের অধিকাংশ সদস্যসহ নির্মমভাবে খুন হন। সৌভাগ্যবশত তার দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকায় বেঁচে যান।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/এইচএন