Alexa ত্যাগীদের কোণঠাসা করে দল ভারীর দরকার নেই: কাদের

ঢাকা, সোমবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৪ ১৪২৬,   ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন

ত্যাগীদের কোণঠাসা করে দল ভারীর দরকার নেই: কাদের

পটুয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৩০ ২ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৮:৫৪ ২ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বসন্তের কোকিল দলে টেনে ত্যাগী নেতাকর্মীদের কোণঠাসা করে দল ভারী করার দরকার নেই বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণে সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমবার পটুয়াখালী শিশু আলাউদ্দিন শিশুপার্কে জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে কমিটি ঘোষণা করে তিনি এ কথা বলেন।

বিকেল তিনটার পরে দ্বিতীয় অধিবেশনে পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলমগীরকে সভাপতি ও যুগ্ম সম্পাদক ভিপি আব্দুল মান্নানকে সম্পাদকের পদে ঘোষণা দেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণে সম্পাদক বলেন, অনেক ত্যাগীরা কমিটিতে জায়গা পায়নি, তাদের যায়গা করে দিতে হবে। ত্যাগী নেতাকর্মীদের কোণঠাসা করে আওয়ামী লীগ বাঁচবে না। বিলবোর্ডে ছবি ও শ্লোগান দিয়ে পোষ্টার লাগিয়ে নেতা হওয়া যায় না। পকেট কমিটি চলবে না, কমিটি করতে গিয়ে খারাপ মানুষদের দলে টানা যাবে না।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নকে বাঁচাতে হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বারবার ক্ষমতায় আনতে হবে। বিগত ৪৪ বছরে বাঙালি জাতির ইতিহাসে সাহসী রাজনীতি ও সফল নারী নেতৃত্বের অধিকারী বঙ্গুবন্ধ কন্যা শেখ হাসিনা।

এ সময় দেশের সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুক্ষে দাড়াতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করতে সবাইকে আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

এর আগে শহরের শহীদ আলাউদ্দিন শিশুপার্কে বেলুন, পায়রা, জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করেন পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক আলহাজ্ব আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পটুয়াখালী-১ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট মো. শাহজাহান মিয়ার সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন- যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আফজাল হোসেন, উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, সদস্য গোলাম রাব্বানী চিনু প্রমুখ।

এছাড়া দ্বিতীয় অধিবেশনে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম সরোয়ারকে এক নম্বর যুগ্ম সম্পাদক ও বাউফল উপজেলা পৌর মেয়র জিয়াউল হক জুয়েলকে দুই নম্বর যুগ্ম সম্পাদক করা হয়। 

২০১৪ সালে পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৯২ সাল থেকে জেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্ব পালন করেন পটুয়াখালী এক আসনের এমপি আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট শাহজাহান মিয়া।

২০১৭ সালের নভেম্বরে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তি যোদ্ধা আলহাজ্ব খান মোশাররফ হোসেনের মৃত্যুর পর ওই পদের দায়িত্ব গ্রহণ করেন ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুক্তি যোদ্ধা কাজী আলমগীর হোসেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ