Alexa তুরস্কের অভাবনীয় সামরিক শক্তি

ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৪ ১৪২৬,   ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪০

তুরস্কের অভাবনীয় সামরিক শক্তি

খালিদ মাহমুদ খান

 প্রকাশিত: ১১:১৫ ১০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১১:১৫ ১০ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের ১৯৫ টি দেশের মধ্যে সামরিক শক্তির দিক দিয়ে তুরস্কের অবস্থান নবম। তুরস্কের মোট সৈন্য সংখ্যা ১২ লাখ ৬৫ হাজার এবং তাদের মধ্যে সক্রিয় সৈন্য সংখ্যা সাত লাখ ৪০ হাজার ৩০০ এবং রিজার্ভে আছে ৫ লাখ ২৫ হাজার সৈন্য। তুর্কি ল্যান্ড ফোর্সেসর মধ্যে রয়েছে ২ হাজার ৪৪৮ টি ট্যাঙ্ক  এবং ১০ হাজার ৭১৪ টি এপিসি বা সাজোয়ার যুদ্ধজান। সেলফ প্রপেল হালজার রয়েছে ১ হাজার ১২৬ টি, হাউইটজার কামান ১ হাজার ২৭২ টি। এছাড়াও ভেহিক্যাল লজ মর্টার ১৭০টি, মাল্টিপল লঞ্চ রকেট সিস্টেম ৩৭৪ টি, টেকটিক্যাল ব্যালিস্টিক মিসাইল ৯২ টি লঞ্চার; ১৬০ টির মতো মিসাইল। অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক মিসাইল রয়েছে ২ হাজার ১৯৬ টি লঞ্চার; ৩৬ হাজার ৩৫০ টি মিসাইল। 

অ্যান্টি ট্যাঙ্ক রকেট এবং গান রয়েছে একত্রে সাড়ে ৪৭ হাজার, শর্ট রেঞ্জ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম রয়েছে ১ হাজার ২১৬ টি। এন্টি এয়ারক্রাফট গান রয়েছে ১ হাজার ২৩১ টি, ম্যানপ্যাডস মিসাইল রয়েছে ৪ হাজার ৫৫৩ টি। মিডিয়াম রেঞ্জ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম রয়েছে ২১ টি ব্যাটারি, ইঞ্জিনিয়ারিং সাপোর্ট ভেহিকল ২৭৮ টি। ট্রান্সপোর্ট ভেহিকল ত্রিশ হাজার, ইউটিলিট প্লেন ১৫৯ টি। ট্রান্সপোর্ট এবং অবসারভেশন এয়ারক্রাফট ৪৬ টি, গ্রাউন্ড এট্যাক এয়ারক্রাফট ৪ টি, কমব্যাট ড্রোন ১০৪ টি, সার্ভেইল্যান্স ড্রোন রয়েছে ১৯২ টি, ইউটিলিটি এবং ট্রান্সপোর্ট হ্যালিকপ্টার ৫২২ টি,  অ্যাটাক হ্যালিকপ্টার ৬৩ টি।

এবার আসা যাক তুর্কিশ এয়ারফোর্স এয়ারক্রাফটের দিকে। প্রায় এগারোশ এর বেশি মিলিটারি এয়ারক্রাফট আছে তুরস্কের। ফাইটার জেট ২৯৮ টি, স্ট্রাইক ফাইটার ১৯৮ টি, ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফট ৩৬৫ টি, এরিয়াল রিফুয়েলিং ট্যাঙ্কার রয়েছে ৭ টি, ট্রেইনার এয়ারক্রাফট ১৮২ টি। ইউটিলিটি ও কমব্যাট হেলিকপ্টার ৯৭ টি, কমব্যাট ড্রোন ৯৭ টি, সার্ভেইল্যান্স ড্রোন ২২ টি। মিলিটারী স্যাটেলাইট ১ টি, মিডিয়াম রেঞ্জ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম ৬০৭ টি ফায়ারিং ইউনিট। শর্ট রেঞ্জ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম ৬৪ টি ফায়ারিং ইউনিট, ম্যানপ্যাডস ১০৮ টি লঞ্চার।

তুর্কিশ নেভি শিপের কথা বলতে গেলে এর টোটাল ডিসপ্লেসমেন্ট প্রায় ২ লাখ ৬০ হাজার টন। এদের মধ্যে সাবমেরিন রয়েছে ১২ টি, ফ্রিগেট ১৬ টি, কোরভিট ১১ টি, মিসাইল বোর্ড ১৮ টি, প্যাট্রোল বোর্ড ৮৬ টি, মাইন ওয়ারফেয়ার ভেসেল ১১ টি, এম্ফিভিয়াস ওয়ারফেজ শিপ ৩৩ টি, অক্সিলারি ভেসেল ৩২ টি, মেরিডিয়াম পেট্রোল এয়ারক্রাফট ১৫ টি, মেরিটাইম ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফট ৩ টি, মেরিটাইম পেট্রোল এয়ারক্রাফট ৭ টি। এন্টি সাবমেরিন হেলিকপ্টার ৪৩ টি, ইউটিলিটি ও সার্ভেইলেন্স হেলিকপ্টার ১৪ টি।

এশিয়া ও ইউরোপ মহাদেশের জায়গা নিয়ে অবস্থিত তুরস্ক তার উন্নত এবং উচ্চ সামরিক শক্তির জন্যই এত দাপটের সঙ্গে চলছে। বর্তমানে তুরস্ক ৫ম প্রজন্মের কিছু যুদ্ধবিমান তৈরি করছে যেটি তাদের জন্য হবে আরো আধিপত্য বিস্তারের অন্যতম একটি সংযোজন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস