তিস্তার গর্ভে সর্বস্ব

ঢাকা, সোমবার   ২০ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪২৬,   ১৪ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

তিস্তার গর্ভে সর্বস্ব

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৬:৪৫ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৭:০১ ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

তিস্তার নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের দুই শতাধিক একর ফসলি জমি ও শতাধিক ঘরবাড়ি। অসময়ের নদী ভাঙনে দিশেহারা হয়ে পড়েছে চরাঞ্চলের মানুষ।

তিস্তা নদীর কড়াল গ্রাসে চন্ডিপুর, শ্রীপুর, কাপাসিয়া, বেলকা ও হরিপুর ইউপির বিভিন্ন চরাঞ্চলে ভাঙন তীব্র আকার ধারণ করেছে। গেল সপ্তাহে তীব্রতা বেড়েছে ব্যাপক হারে। ভাঙনের মুখে আধপাকা ধান কেটে নিতে বাধ্য হচ্ছে কৃষকরা, সরিয়ে নিচ্ছে বসতবাড়ি। খোলা আকাশের নিচে কনকনে ঠাণ্ডায় মানবেতর জীবনযাপন করছে নারী-শিশু-বৃদ্ধরা।

কাপাসিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বলেন, এরইমধ্যে দুই শতাধিক একর জমি ফসলসহ নদীতে বিলীন হয়েছে। নদী যে হারে ভাঙছে তাতে কয়েকদিনের মধ্যে সহস্রাধিক একর জমি নদীতে চলে যাবে। স্থায়ীভাবে নদী সংরক্ষণ ও শাসন না করলে প্রতিবছর এভাবে ভাঙতেই থাকবে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নুরুনবী সরকার বলেন, নদী ভাঙনের বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। এরইমধ্যে দুটি ইউপির ভাঙন কবলিত পরিবারদের মাঝে ঢেউটিন ও আর্থিক সহায়তা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর

Best Electronics