Alexa তিন লাখ রোগীর চারজন ডাক্তার

ঢাকা, সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ১ ১৪২৬,   ১৬ মুহররম ১৪৪১

Akash

তিন লাখ রোগীর চারজন ডাক্তার

দেলোয়ার হোসেন, জামালপুর ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫৭ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক-নার্সসহ জনবল সংকট দীর্ঘদিনের। এতে প্রয়োজনীয় সেবা থেকে বঞ্চিত হয়ে প্রাইভেট হাসপাতালে যাচ্ছে রোগীরা।

উপজেলার তিন লাখ মানুষের সেবায় এ হাসপাতালে ১৪ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, তিনজন নার্স, এক্স-রে, আলট্রাসনোগ্রামি টেকনিশিয়ানের পদ খালি পড়ে আছে। এছাড়া প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের অভাবে থেমে আছে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা।

সেবার মান বাড়াতে ২০০৮ সালে দেওয়ানগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয়। তবুও কাঙ্খিত সেবা পাচ্ছে না রোগীরা। প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম ও অ্যাম্বুলেন্সের জন্য বরাদ্দ এলেও কেনা হয়নি তা।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা মো. কাওসার আহমেদ বলেন, আমরা স্বল্প আয়ের মানুষ। স্বল্প খরচে উন্নত সেবার জন্য এ হাসপাতালে আসি। কিন্তু এখানে ডাক্তার নেই। তাই আমাদের বাধ্য হয়ে বেসরকারি হাসপাতালে যেতে হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সৈয়দ আবু আহাম্মদ শাফী বলেন, স্বল্প জনবল নিয়ে আমরা পর্যাপ্ত সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছি। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। আশা করি দ্রুত জনবল ও সরঞ্জামের সংকট দূর হবে।

জেলা সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য অনুযায়ী, জামালপুরের আটটি সরকারি হাসপাতালে ২৬৯ জন চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও। কর্মরত আছেন ১০৬ জন। বাকিরা বিভিন্ন কারণে অনুপস্থিত। এছাড়া ৮৫ জন চিকিৎসকের পদ শূন্য রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর