Alexa তালের বিবিখানা পিঠার রেসিপি

ঢাকা, রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৭ ১৪২৬,   ২২ মুহররম ১৪৪১

Akash

তালের বিবিখানা পিঠার রেসিপি

 প্রকাশিত: ১৩:৪৩ ৩১ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ১৩:৪৩ ৩১ আগস্ট ২০১৮

পিঠা খেতে কার না ভালো লাগে! আর সেটা যদি হয় তালের বিবিখানা পিঠা তাহলে তো কথাই নেই। এখন বাজারে প্রচুর পরিমাণে তাল উঠেছে, থাকবে ভাদ্র মাস পর্যন্ত। তালের পিঠা বানিয়ে খাওয়ার সময় এখনই। জেনে নিন, কিভাবে তালের বিবিখানা পিঠা তৈরি করা যায়।

উপকরণ: চালের গুঁড়ো দেড় কাপ, ময়দা হাফ কাপ, দেড় কাপ চিনি, হাফ টেবিল চামচ বেকিং পাউডার, তালের রস, দুই কাপ দুধ, দুটো ডিম, পরিমাণ মতো ঘি, দারুচিনি গুঁড়ো হাফ চা চামচ, কাঁচা এলাচের গুঁড়ো, তেল পরিমাণ মতো, নারকেল কোরা ১ কাপ পরিমাণ।

প্রণালী: প্রথমে দেড় কাপ পরিমাণ চালের গুঁড়ো নিতে হবে। বাজারে প্যাকেটে যে চালের গুঁড়ো পাওয়া যায় সেটা নিলেও হবে। আর সঙ্গে হাফ কাপ পরিমাণ ময়দা, দেড় কাপ পরিমাণ চিনি, খেজুর বা আখের গুঁড়ও ব্যবহার করতে পারেন। হাফ টেবিল চামচ পরিমাণ বেকিং পাউডার দিয়ে এগুলো ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর জ্বাল দিয়ে রাখা তালের রস নিতে হবে। এটা ঘন করে নিলে ভালো হয়। ফ্রেস তাল ব্যবহার করলে তা জ্বাল দিয়ে একটু ঘন করে নিতে হবে। দুই কাপ দুধ জ্বাল দিয়ে সেটাকে এক কাপ পরিমাণ করে ঠান্ডা করে নিতে হবে। সেই দুধটাও আস্তে আস্তে মিশিয়ে নিতে হবে। তবে আর কোন আস্ত দলা থাকবে না।

এর মধ্যে এক কাপ পরিমাণ নারকেল কোরা দিতে হবে। চাইলে ফ্রেস কিংবা ফ্রোজেন যেকোন নারকেল কোরা দিয়েই এই পিঠা তৈরি করতে পারেন। তবে শুকনো নারকেল দিয়ে এই পিঠা হবেনা। চাইলে সব উপকরণ এক বারে দিয়েও পিঠা তৈরি করে নিতে পারেন। তবে ধাপে ধাপে দিলে এগুলো ভালো ভাবে একটির সঙ্গে আরেকটি উপকরণ মিশে যাবে আর কোন দলা থাকবে না। দুটো ফেটে রাখা ডিম দিয়ে দিতে হবে। সেই সঙ্গে এক টেবিল চামচ পরিমাণ ঘি দিতে পারেন। আপনারা চাইলে ঘি এর বদলে তেলও ব্যবহার করতে পারেন। তবে ঘি দিলে সুন্দর একটি ফ্লেভার আসে। ভাজা ছাড়া দারুচিনির গুঁড়ো হাফ চা চামচ, কাঁচা এলাচের গুঁড়ো দিয়ে দিতে পারেন। এতেও ভালো ফ্লেভার আসবে। এবার একটি ওভেন বা হিট প্রুফ বাটি নিতে হবে। এর চার পাশে তেল মেখে এতে পিঠার বাটার ঢেলে নিতে হবে। চাইলে ওভেনেও ব্রেড করতে পারেন। সেই ক্ষেত্রে ৪০০ ডিগ্রী ফারেনহাইট ১৮০ ডিগ্রী সেলসিয়াসে ওভেনটাকে দশ মিনিটের জন্য প্রিহিট করতে হবে।

পিঠার বাটি দিয়ে ৪৫-৫০ মিনিট কেকের মতো ব্রেক করলেই হয়ে যাবে। এই পিঠা যেভাবে পুডিং তৈরি করা হয় সেভাবেও তৈরি করতে পারেন। এজন্য হাড়িতে পানি নিতে হবে তার মধ্যে পিঠার বাটি বসিয়ে দিন। পানির পরিমাণ যেন পিঠার বাটির অর্ধেকটা থাকে, খুব বেশি না হয়। এবার পিঠার বাটি কোন ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। যেন ভেতরে পানি না ঢুকে। এবার পুরো হাড়িটা ঢেকে দিতে হবে। হাড়িতে কোন ছিদ্র রাখা যাবেনা। চুলার আঁচ বাড়িয়ে দিয়ে সাত থেকে আট মিনিট জ্বাল দিতে হবে। ঠিক সাত থেকে আট মিনিট পর চুলার আঁচ মিডিয়াম থেকে কমিয়ে দিতে হবে। পুরো পিঠা হতে প্রায় ৫৫ মিনিটের মতো সময় লাগবে। চুলার ভাপে তৈরি করলে একটু সময় বেশি লাগবে। খুব সাবধানে ঢাকনা খুলে একটা কাঠি দিয়ে দেখে নিতে হবে পিঠা হয়েছে কি-না।  যদি না হয়ে থাকে তবে আরও পাঁচ ছয় মিনিট রাখতে হবে। এরপর হাড়ির পানি ঠান্ডা হলে পিঠার বাটি উঠিয়ে নিন। এবার ইচ্ছামত কেটে পরিবেশন করুন মজাদার তালের বিবিখানা পিঠা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস/এসজেড