ঢাকা, শুক্রবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯,   ফাল্গুন ১০ ১৪২৫,   ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪০

তালেবান হুমকিতে ঘরছাড়া ‘আফগান মেসি’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

 প্রকাশিত: ১৫:৫৬ ৭ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:৪৭ ৭ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মূর্তাজা আহমাদি। যুদ্ধ-বিধ্বস্ত আফগানিস্তানের ৭ বছরের এ বালক ২০১৬ সালে বিশ্বজুড়ে আলোচনায় এসেছিলো পলিথিন দিয়ে বানানো আর্জেন্টাইন ফুটবল মহাতারকা লিওনেল মেসির জার্সি গায়ে জড়িয়ে। সে সময়ে তার বয়স ছিলো মাত্র ৫ বছর। ইন্টারনেট জুড়ে তার সেই ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছিলো ‘প্ল্যাস্টিক মেসি’ নামে।

পরবর্তীতে স্বয়ং মেসি নিজের স্বাক্ষর করা একটি জার্সি তার ঠিকানায় জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংগঠন ‘ইউনিসেফ’ এর মাধ্যমে উপহার হিসেবে পাঠিয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, পরবর্তীতে কাতারে তাকে আমন্ত্রণ জানিয়ে দেখাও করেছিলেন এ খুদে ভক্তের সঙ্গে। 

সেই মূর্তাজার পরিবার জানিয়েছে, জঙ্গিগোষ্ঠী তালেবানের হুমকিতে ছোট্ট এ শিশুটি বর্তমানে তার ঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। 

তার পরিবার দেশটির রাজধানী কাবুল ছেড়ে বর্তমানে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় গজনি প্রদেশে বসবাস করছে। তবে সেখানেও তার পরিবারকে লক্ষ্যে পরিণত করছে তালেবানরা। এর আগে ২০১৬ সালে অল্প কিছুদিনের জন্য পাকিস্তানের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়েছিল। তবে পরবর্তীতে অর্থাভাবে আবার নিজ দেশে ফিরে আসে।

তার পরিবার জানিয়েছে, মূলতঃ বিশ্বজুড়ে তার নাম ছড়িয়ে পড়ার কারণেই তালেবানরা তাকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেছে।

মূর্তাজার মা শাফিকা বলেন, স্থানীয় তালেবান নেতারা তাকে হুমকি দিয়ে বলেছে, ‘তোমরা বিশ্বজুড়ে অনেক নাম কামাই করেছো। মেসি তোমাদের যে অর্থ দিয়েছে তা আমাদের দিয়ে দাও। অন্যথায় তোমার ছেলেকে আমরা নিয়ে যাবো।’

তিনি আরো বলেন, এ হুমকির কিছুদিন পর একদিন তারা তাদের বাড়ির সামনে ফাঁকাগুলির শব্দ শুনতে পায়। এ ঘটনার পরের দিনই মধ্যরাতে তারা সবকিছু ফেলে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। পালানোর সময় তারা তাদের কোনো কিছুই সঙ্গে নিতে পারেননি, এমনকি মেসির উপহার দেয়া সেই জার্সিটিও না।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী/জেডআর