তালাবদ্ধ কক্ষে তরুণীর বস্তাবন্দী মরদেহ, কথিত স্বামী পলাতক

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৬ ১৪২৬,   ১৫ শা'বান ১৪৪১

Akash

তালাবদ্ধ কক্ষে তরুণীর বস্তাবন্দী মরদেহ, কথিত স্বামী পলাতক

সাভার প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৫০ ২১ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৬:১৩ ২১ মার্চ ২০২০

বস্তাবন্দী মরদেহ (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

বস্তাবন্দী মরদেহ (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

সাভারের আশুলিয়ায় একটি ভাড়া বাসার তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে তরুণীর অর্ধগলিত বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে আশুলিয়ার তৈয়বপুর এলাকায় জিল্লুর রহমানের বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার পর থেকে নিহতের কথিত স্বামী শরিফুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন। তিনি কুষ্টিয়ার আলমডাঙ্গা উপজেলার বড় গাংচিল এলাকার মইনুল হকের ছেলে।

নিহত শাহিনা খাতুন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার চরসাদীপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি জিল্লুর রহমানের বাড়িতে ভাড়া থেকে সাভারের হেমায়েতপুরে এবি অ্যাপারেলস কারখানার সুইং অপারেটর হিসেবে কাজ করতেন।

বাড়ির মালিকের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম জানান, স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ১ মার্চ তাদের শ্রমিক কলোনির একটি কক্ষ ভাড়া নেন শাহিনা ও শরিফুল। শুক্রবার সকাল থেকে তাদের কক্ষের দরজা বাইর থেকে তালাবদ্ধ ছিল। শনিবার সকালে কক্ষের ভেতর থেকে দুর্গন্ধ বের হলে পুলিশকে জানানো হয়। দুপুরে পুলিশ তালা ভেঙে কক্ষ থেকে ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে।

আশুলিয়া থানার এসআই ফজর আলী জানান, মরদেহ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই তরুণীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর কথিত স্বামী শরিফুল পালিয়ে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর