.ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৫ ১৪২৬,   ১৩ শা'বান ১৪৪০

তালাক দেয়া স্ত্রীকে ধর্ষণে যাবজ্জীবন

ফরিদপুর প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৬:১১ ৯ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৬:১১ ৯ জানুয়ারি ২০১৯

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ফরিদপুরে তালাকের তথ্য গোপন করে স্ত্রীকে ধর্ষণের দায়ে স্বামীকে যাবজ্জীবন স্বশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। জরিমানা অনাদায়ে ওই ব্যক্তিকে আরো চার মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। 

বুধবার ফরিদপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের জেলা জজ মো. আলমগীর কবীর এ আদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার সদরের কলেজ বালিয়ে মহল্লার ফারুক হোসেন একজন ভ্যান চালক।

এ মামলার নথি সূত্রানুযায়ী, ফারুক তার স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে ২০০৬ সালের ১০ নভেম্বর তালাক দেন। তবে তিনি তালাক দেওয়ার তথ্য গোপন রেখে ২০০৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০০৭ সালের ১১ এপ্রিল পর্যন্ত স্ত্রীর সঙ্গে বসবাস করেন। 

২০০৭ সালের ১১ এপ্রিল ফাতেমা তালাকের বিষয়টি জানতে পারেন। এরপরও তিনি ২০০৮ সালের ১০ মার্চ তালাকে তথ্য গোপন রেখে তাকে ধর্ষণের অভিযোগে সাবেক স্বামী ফারুককে একমাত্র আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে নগরকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌশলী (পিপি) স্বপন পাল বলেন, এ মামলায় ফারুক প্রথমে গ্রেফতার হন। পরে তিনি আদালত থেকে জামিন নিয়ে পালিয়ে যান। গতকাল রায় ঘোষণার সময় ফারুক আদালতে হাজির ছিলেন না।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস