Alexa তামিমের চোখে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি

ঢাকা, সোমবার   ২৬ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ১১ ১৪২৬,   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

তামিমের চোখে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি

 প্রকাশিত: ২০:১৩ ২৮ এপ্রিল ২০১৮  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

চূড়ান্ত হয়েছে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ সূচি। বছর খানেক বাকি থাকলেও বিশ্বকাপে কেমন করতে পারে বাংলাদেশ সেই আলোচনা চলছে এখন থেকেই। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় ২০১৯ বিশ্বকাপের আসর ফিরছে ১৯৯২ সালের ফরম্যাটে। যেখানে প্রতিটি দল প্রথম পর্বে খেলবে একে অপরের সঙ্গে। এরপর সেরা চার দল সেমি ফাইনালে।

বাংলাদেশ কি অতদূর পথ পাড়ি দিতে পারবে? টাইগারদের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবালের কথায় পরিষ্কার, চ্যালেঞ্জটি নিচ্ছেন তিনি।

সর্বশেষ ২০১৫ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছে বাংলাদেশ। ওটাই বিশ্বকাপে মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার দলের সর্বোচ্চ সাফল্য। ইংল্যান্ড অস্ট্রেলিয়ায় হওয়া আসর থেকেই উন্নতির ধারাবাহিক ছাপ রেখে এগিয়েছে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকাকে সিরিজ হারিয়েছে। আছে বিদেশের মাটিতে সাফল্য।

২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমি ফাইনাল খেলেছে বাংলাদেশ। তবে আরেকটি বিশ্বকাপ সামনে রেখে যখন আলোচনা জমেছে তখন হতাশার কথা বলেছেন খোদ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সামনের আসরে টাইগারদের নিয়ে ঠিক আশাবাদী হতে পারছেন না তিনি। পথটা তার কাছে কঠিনই ঠেকছে।

রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতির ফরম্যাটটা সত্যিকার অর্থেই চ্যালেজ্ঞিং। তবে তামিমের কথায় থাকছে আশার সুর। এবারের ফরম্যাট নিয়ে বরং রোমাঞ্চিত তিনি, একটা টুর্নামেন্টে সবার সঙ্গে খেলা, এই সুযোগ আমরা পাব। প্রতিটি টেস্ট খেলুড়ে দেশের সঙ্গে খেলা হবে। ফরম্যাট নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে আমি রোমাঞ্চিত। এটা এমন ফরম্যাট যদি কোনো দল শিরোপা জিততে চায় পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে সেই দলকে ভালো খেলতে হবে। প্রতিটি দলকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। লম্বা সময় ধরে অনেক ম্যাচ জিততে হবে কোয়ালিফাই করতে। ফরম্যাটটা চ্যালেঞ্জিং হবে। আমি খেলতে উন্মুখ।

এর আগে বিশ্বকাপে প্রথমে গ্রুপপর্ব, পরে কোয়ার্টার ফাইনাল বা সুপার সিক্স, সেমি ফাইনাল এমন ফরম্যাটে খেলেছে বাংলাদেশ। গ্রুপপর্ব হলে আলোচনা চলে আসে, সর্বনিম্ন কটি ম্যাচ জিততে হবে বা কাকে কাকে হারানো লক্ষ্য হবে? এবার আর সেই লক্ষ্যে হাঁটার উপায় নেই। তামিম তাই বলছেন, লম্বা সময় ভালো খেলতে হবে। টুর্নামেন্টকে যদি আমরা স্মরণীয় করে রাখতে চাই তবে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হলো এখনো আমাদের হাতে এক বছর সময় আছে। এই সময়ে যে সিরিজগুলো হবে সেখানে ভালো করা। আমরা যদি ভালো খেলি, সিরিজ জিতি, তবে আত্মবিশ্বাস নিয়ে যেতে পারবো।

তামিম তাই বিশ্বকাপের দিকে এখনই ফোকাস না দিয়ে আসছে সিরিজের দিকেই মন ও চোখ রাখতে চান, হ্যাঁ, বিশ্বকাপে যাবো, ভালো করব, এটা সবাই চায়। তবে এখনই বিশ্বকাপ নিয়ে কথা বলাটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নয়। আমাদের সামনে যে সিরিজ আসছে, আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর, এশিয়া কাপ। অনেক টুর্নামেন্ট সামনে। বিশ্বকাপে আমাদের পারফরম্যান্স নির্ভর করবে এই সিরিজগুলো আমরা কেমন খেলছি সেটির উপর। তবে চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ, সবাই এখানে ভালো খেলতে চায়।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ থেকে কোচহীন টাইগাররা। বিশ্বকাপ সামনে রেখে আসছে সিরিজগুলোতে তাই টাইগারদের প্রস্তুতি কতটা যথার্থ হবে? তামিম কোচ নিয়োগে বিসিবির পরীক্ষা নিরীক্ষাকে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন, আমার কাছে যেটা ভালো লাগছে, তারা তাড়াহুড়ো করছে না। চাইলে হুট করে একজন নিয়েও আসতে পারত। তাড়াহুড়ো না করে যাকেই নিয়ে আসুক, সময় নিয়ে করছে। যথার্থ কোচকে খুঁজতে সময় নিচ্ছে, এটা ভালো দিক। বর্তমান কোচিং স্টাফদের সঙ্গে দলের প্রস্তুতিটা যথার্থই হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তামিম।

ডেইলি বাংলাদেশ/সালি

 

Best Electronics
Best Electronics