ঢাকা-১০ উপ-নির্বাচনে আলোচনায় যারা

ঢাকা, সোমবার   ০৬ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৩ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪১

Akash

ঢাকা-১০ উপ-নির্বাচনে আলোচনায় যারা

জাফর আহমেদ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৯ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২১:২৫ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা-১০ আসন উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে ১০ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। তাদের মধ্যে মনোনয়ন পাওয়ার আলোচনায় প্রথমে রয়েছেন এফবিসিসিআই এর সাবেক সভাপতি শফিউল আলম মহিউদ্দিন। এরপরই আছেন সুপ্রিমকোর্ট বারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট বশির আহমেদ ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন। 

জানা গেছে, ঢাকা-১০ আসনে উপ-নির্বাচনের মনোনয়ন পেতে ১০ জন আবেদন করলেও নেতাকর্মীরা বিভিন্ন নিরীক্ষার মাধ্যমে শফিউল আলম মহিউদ্দিনকে এগিয়ে রাখছেন। 

এর আগে তাপসের উত্তরসূরী হতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন- মেজর ইয়াদ আলী ফকির, মো. শফিউল ইসলাম  মহিউদ্দিন, অ্যাডভোকেট বশির আহমেদ, আদম তমিজী হক, ড. আব্দুল ওয়াদুদ, মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিশ, মো. কুদ্দুসুর রহমান, এ এস এম কামরুল আহসান, কাজী মোর্শেদ হোসেন কামাল ও মো. সাঈদ খোকন।

ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৪ ফেব্রুয়ারি বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত মনোনয়ন বিতরণ ও জমা নেয়া চলে। 

যারা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন তাদের মধ্যে থেকে সঠিক প্রার্থীকে নির্বাচিত করার জন্য শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩, বাগেরহাট-৪, বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনে উপনির্বাচনের প্রার্থী ঠিক করা হবে। 

ঢাকার বাইরে চারটি আসনে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৬৮ জন।  

মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করার সময় সাংবাদিকদের শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, ঢাকা-১০ আসনে যদি আমি মনোনয়ন পাই, এটা আমার জন্য অত্যন্ত সৌভাগ্যের ও আনন্দের। আমাকে মনোনীত করলে অত্যন্ত আনন্দচিত্তে আমি গ্রহণ করবো। এ আসনের নেতাকর্মীরাও আমাকে গ্রহণ করবেন বলে আমি আশা প্রকাশ করছি।  

তিনি আরো বলেন, আমাদের সবার উচিত দেশের সেবা করা। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সোনার বাংলা গড়ে তোলা। দেশকে এগিয়ে নেয়ার জন্য সর্বশ্রেণীর মানুষ প্রয়োজন। একজন রাজনীতিবিদ যেমন দেশকে কন্ট্রিবিউট করেন, একজন অর্থনীতিবিদও কন্ট্রিবিউট করেন। সবারই মূল উদ্দেশ্য দেশ ও জনগণের সেবা করা।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ/এসএএম/এসআই