ডেক্সামেথাসোন: করোনায় প্রথম জীবন রক্ষাকারী ওষুধ!
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=188195 LIMIT 1

ঢাকা, বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭,   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

ডেক্সামেথাসোন: করোনায় প্রথম জীবন রক্ষাকারী ওষুধ!

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:২১ ১৬ জুন ২০২০   আপডেট: ১৯:৫১ ১৬ জুন ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

করোনা রোগীদের জীবন বাঁচাতে সহায়তা করতে পারে ডেক্সামেথাসোন নামক একটি ওষুধ। যুক্তরাজ্যের বিশেষজ্ঞরা জানান, কম-ডোজ স্টেরয়েড চিকিত্সা মারাত্মক ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে একটি বড় অগ্রগতি।

বিবিসি’র একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে যুক্তরাজ্যের বিশেষজ্ঞদের মতে, ওষুধটি তিনদিনেই ভেন্টিলেটর দেয়া রোগীদের মৃত্যুর ঝুঁকি হ্রাস করে। অক্সিজেনযুক্তদের ক্ষেত্রে এটি পঞ্চম দিনেই কার্যকারিতা শুরু করে মৃত্যু হ্রাস করে।

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির একটি দলের নেতৃত্বে এই পরীক্ষায় প্রায় ২,০০০ হাসপাতালের রোগীদের ডেক্সামেথেসোন দেয়া হয়েছিল। তারা সংখ্যায় চার হাজারেরও বেশি যারা ড্রাগ পাননি তাদের সাথে তুলনা করা হয়েছিল। এটি ভেন্টিলেটরে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে মৃত্যুর ঝুঁকি ৪৯% থেকে কমিয়ে ২৮% ফেলে। যেসব রোগীদের অক্সিজেনের প্রয়োজন রোগীদের ক্ষেত্রে এটি মৃত্যুর ঝুঁকি ২৫% থেকে ২০% কমিয়ে ফেলে।

প্রধান তদন্তকারী প্রফেসর পিটার হরবি বলেছেন, এটি এখন পর্যন্ত একমাত্র ড্রাগ যা মৃত্যুর হার হ্রাস করতে সাহায্য করছে এবং এটি একটি বড় অগ্রগতি।

শীর্ষ গবেষক প্রফেসর মার্টিন ল্যান্ড্রে বলেছেন, অনুসন্ধানগুলি প্রমাণ করে যে ভেন্টিলেটরগুলিতে চিকিত্সা করা প্রতিটি আট রোগীর জন্য আপনি একটির জীবন বাঁচাতে পারেন। অক্সিজেন দ্বারা চিকিত্সা করা রোগীদের জন্য, আপনি ড্রাগের সঙ্গে চিকিত্সা করায় প্রায় ২০-২৫ জনের এর জন্য একটি জীবন বাঁচান।

প্রফেসর ল্যান্ড্রে বলেছিলেন, উপযুক্ত হলে হাসপাতালের রোগীদের এখন বিলম্ব না করেই দেয়া উচিত, তবে লোকেরা বাইরে গিয়ে বাড়িতে যাবার জন্য এটি কেনা উচিত নয়। করোনায় যাদের শ্বাস-প্রশ্বাসে সাহায্যের প্রয়োজন হয় তাদের ক্ষেত্রে ডেক্সামেথাসোন ব্যবহৃত হয়।

গবেষকরা অনুমান করেন যে ড্রাগটি যুক্তরাজ্যে করোনভাইরাস মহামারীর শুরু থেকেই পাওয়া যেত যদি পাঁচ হাজার লোকের জীবন বাঁচানো যেত। কারণ এটি সস্তা, এটি কোভিড -১৯ রোগীর সংখ্যক সংখ্যক রোগীর সাথে লড়াই করা দরিদ্র দেশগুলিতেও এটি প্রচুর উপকার পেতে পারে।

করোনাযুক্ত ২০ রোগীর মধ্যে প্রায় ১৯ জন হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে সুস্থ হয়ে উঠেন। যারা হাসপাতালে ভর্তি আছেন তাদের মধ্যে বেশিরভাগ সুস্থ হওয়ার পরও অক্সিজেন বা যান্ত্রিক বায়ুচলাচলের প্রয়োজন হতে পারে। 

ওষুধটি এরইমধ্যে অন্যান্য অবস্থার একটি ব্যাপ্তিতে প্রদাহ হ্রাস করতে ব্যবহৃত হয় এবং এটি করোনাকে লড়াই করার চেষ্টা করার দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা ওভারড্রাইভে যাওয়ার সময় ঘটতে পারে এমন কিছু ক্ষতি থামাতে সহায়তা করে।

মার্চ থেকে রিকভারি ট্রায়াল চলছে। এতে ম্যালেরিয়া ড্রাগ হাইড্রোক্সিলোক্লোইন অন্তর্ভুক্ত ছিল যা পরবর্তীতে এটির ফলে প্রাণঘাতী ও হার্টের সমস্যা বৃদ্ধি করার উদ্বেগও সৃষ্টি করছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস/মাহাদী