ডায়াবেটিস রোগীরাও খেতে পারেন খেজুর

নিউজ ডেস্কডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
ফাইল ছবি

পুষ্টিবিদরা বলেন, খেজুর হচ্ছে সেই সুপারফুড যাতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় আঁশ, উপকারী তেল, ক্যালসিয়াম, সালফার, আয়রন, পটাশিয়াম, ফসফরাস, কপার এবং আরো নানাবিধ খনিজ। রয়েছে উপকারী ভিটামিনও।

এটি দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায়, শরীরে শক্তি যোগায়, হার্ট সবল রাখে। প্রচুর অ্যান্টি অ্যাক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ এ ফলটিতে সুগারও আছে পর্যাপ্ত।

পুষ্টিবিদরা বলেন চাইলে ডায়াবেটিস রোগীরাও খেতে পারেন খেজুর।

তবে ডায়াবেটিস রোগীরা খেজুর খেতে পারেন দই দিয়ে। এতে তাদের গ্লাইকেমিক কন্ট্রোলে সুবিধা হয়।
যাদের ডায়াবেটিস নেই তারা স্বাভাবিকভাবে দৈনিক তিনটা থেকে পাঁচটা খেজুর খেতে পারেন।

খেজুরে থাকা প্রাকৃতিক চিনি রোজা ভাঙ্গার জন্য সবচেয়ে কার্যকর। তবে খেজুর খাওয়ার সবচেয়ে ভালো সময় হচ্ছে সকালবেলা।

ভারতীয় ডায়াবেটোলজিস্ট রোশানি গ্যাজ বলেন, যদি রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা যায় তাহলে ডায়াবেটিস রোগীরাও খেতে পারেন খেজুর। তবে, খেজুর খাওয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়াই ভালো।

তবে পুষ্টিবিদরা বলেন, ডায়াবেটিস রোগীরা দৈনিক ছয় থেকে আটটি খেজুর খেতে পারেন। তবে বেশি খেজুর খেলে মুটিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও দেখা দিতে পারে। এছাড়াও দাঁতের মাড়ি ক্ষয়ের রোগেও আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে। তাই পরিমিত পরিমাণ খেজুর খাওয়াই উচিত।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে