ডাস্টার দিয়ে মেরে ছাত্রের ঠোঁট ফাটালেন শিক্ষক

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০২ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২০ ১৪২৬,   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Akash

ডাস্টার দিয়ে মেরে ছাত্রের ঠোঁট ফাটালেন শিক্ষক

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:১৫ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২২:১৮ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আহত ছাত্র মামুন ও অভিযুক্ত শিক্ষক শামসুন নাহার

আহত ছাত্র মামুন ও অভিযুক্ত শিক্ষক শামসুন নাহার

লালমনিরহাটের আদিতমারীতে ডাস্টার দিয়ে মেরে এক ছাত্রের ঠোঁট ফাটিয়ে দিয়েছেন এক শিক্ষক। সোমবার ওই উপজেলার ভেলাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজে এ ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রধান শিক্ষক আনিসুর রহমান। নির্যাতনের শিকার আব্দুল্লাহ আল মামুন ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র।

আহত শিক্ষার্থী জানান, তিনি এক বন্ধুর কাছ থেকে ২০ টাকা নিয়েছিলেন। ওই টাকা দিতে দেরি হওয়ায় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। ওই সময় শিক্ষক শামসুন নাহার ক্লাসে ঢোকেন। তিনি তর্কের বিষয়ে জানতে চাইলে ওই বন্ধু তাকে জানান, মামুন তাকে অশ্লীল ভাষায় গালি দিয়েছে। এতে রাগান্বিত হয়ে ডাস্টার দিয়ে মামুনকে মারেন। এক পর্যায়ে তার ঠোঁট ফেঁটে রক্ত পড়ে ও তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। পরে সহপাঠীরা তার জ্ঞান ফেরায়। এরপর পরিবারের সদস্যরা এসে মামুনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

অভিযুক্ত শিক্ষক শামসুন নাহার জানান, মামুন তার সঙ্গে খারাপ আচরণ ও যৌন হায়রানি করেছে।

আব্দুল্লাহ আল মামুনের চাচা নূর আলম বলেন, ওই শিক্ষক ভেলাবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলীর ছোট ভাইয়ের স্ত্রী। তাই তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বলার সাহস পায় না। তিনি আমার ভাতিজার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলে লাল টিসি দেয়ার হুমকি দিয়েছেন। আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশ ও শিক্ষা অফিসে আবেদন করেছি।

ভেলাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনিসুর রহমান বলেন, ওই ছাত্র শামসুন নাহার ম্যাডামকে অশ্লীল ভাষায় কিছু বলেছিল। তাই তাকে শাসন করা হয়েছে। এটা নিয়ে অভিযোগ বা মামলা করে লাভ কি?

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার সৌরভ দাস বলেন, মামুনের ঠোঁট ফেঁটে গেছে। দুই হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর