Exim Bank Ltd.
ঢাকা, সোমবার ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ৮ মাঘ ১৪২৫

ডান থেকে শুরু, নবীজি’র (সা.) সুন্নত

নুসরাত জাহানডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
ডান থেকে শুরু, নবীজি’র (সা.) সুন্নত
ফাইল ছবি

নবী (সা.) এর সুন্নতসমূহের ওপর আমলের নিয়ত করা লুটের মালের মত। অর্থাৎ একটি আমলের মাঝে যতোগুলো সুন্নতের নিয়ত করবে, ততোটি সুন্নতের সওয়াব পেয়ে যাবে।

যেমন তিন নিঃশ্বাসে পানি পান করা একটি সুন্নত। পাত্র থেকে মুখ সরিয়ে নেয়া আরেকটি সুন্নত। একই সঙ্গে এ দু’টি সুন্নতের নিয়ত করা কতো সহজ। সুন্নত সম্পর্কে ইলম যতোবেশি থাকবে, নিয়তের মাধ্যমে ততোবেশি সাওয়াব লাভ করতে পারবে।

ডান দিক থেকে বণ্টন শুরু করাও সুন্নত:

عن انس رضى الله ةه ان رسول الله صلى الله عليه وسلم اتى بلبن قد شيب بماء ، وعن يمينه اعرابى ، وعن يساره ابو بكر رضى الله عنه فشري ، ثم اعطى الاعرابى وقال : الايمن فالايمن

হাদীসটিতে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ আদবের কথা বলেছেন। আদবটি মুসলিম উম্মাহর নিদর্শনও বটে। অথচ আমাদের সমাজে এ বিষয়েও অবহেলা করা হয়। আদবটি এই হাদীসে বিবৃত হয়েছে একটি ঘটনার মাধ্যমে।

‘এক ব্যক্তি রাসূলে কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের দরবারে পানি মিশ্রিত কিছু দুধ নিয়ে এল। এ মিশ্রণটা ছিল বিশেষ কোনো কারণে; দুধ বাড়ানোর উদ্দেশ্যে নয়। বরং আরবের মাঝে প্রসিদ্ধ ছিল, নির্ভেজাল দুধের চেয়ে পানি মিশ্রিত দুধের মধ্যে তুলনামূলক ভিটামিন অধিক। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উক্ত দুধ থেকে কয়েক ঢোক পান করে বাকিটুকু উপস্থিতদের মাঝে বণ্টন করে দিলেন। সে সময় তাঁর ডান দিকে উপবিষ্ট ছিল এক গ্রাম্য আরব। আর বাম দিকে উপবিষ্ট ছিলেন হজরত আবু বকর সিদ্দীক (রা.)। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অবশিষ্ট দুধটুকু প্রথমে হজরত আবু বকর (রা.)-কে না দিয়ে ডান দিকে উপবিষ্ট গ্রাম্য লোকটিকে দিলেন এবং বললেন, যে ব্যক্তি ডান দিকে আছে, সর্বপ্রথম সেই পাওয়ার অধিক হকদার। তারপর বামের ব্যক্তি’। (তিরমিযী, হাদীস নং-১৭১৫, বুখারী, হাদীস নং- ২১৭১)

হজরত আবু বকর সিদ্দীক (রা.) এর মর্যাদা:

হজরত মুজাদ্দিদে আলফেসানী (রহ.) এর ভাষায় ‘সিদ্দীক’ বলা হয়, ওই ব্যক্তিকে যিনি নবীর প্রতিচ্ছবি হন। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আয়নার সামনে দাঁড়ালে তাঁর সত্তা যদি নবী হয়, তাহলে আয়নার দেদীপ্যমান প্রতিচ্ছবির নাম হল সিদ্দীক। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের খলীফা বলতে যা বুঝায় সিদ্দীকের ব্যক্তি সত্তার মাঝে তা পুরো মাত্রায় ছিল বিদ্যমান। আম্বিয়ায়ে কেরামের নবুওয়াতের মর্যাদার পরিবর্তী স্থান যে ব্যক্তির তিনি হলেন হজরত আবু বকর সিদ্দীক (রা.)। তাই হজরত ওমর (রা.) একবার সিদ্দীকে আকবর (রা.)-কে বলেছিলেন, গোটা জীবন যেসব আমল করেছি, সবগুলো আপনি নিয়ে নিন, তবে তার পরিবর্তে সেই এক রাতের সওয়াব আমাকে দান করুন, যে রাতে আপনি রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সঙ্গে সাওর গুহাতে কাটিয়েছিলেন। এত বড় মর্যাদার অধিকারী হওয়া সত্তেও রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম দুধের পেয়ালাটা প্রথমে আবু বকর সিদ্দীক (রা.)-কে দেননি; বরং গ্রাম্য ব্যক্তিটিকে দিয়েছেন। সঙ্গে সঙ্গে এর কারণও বলে দিয়েছেন যে, ‘ডানের লোকের হক অধিক। ডানের পর আসবে বামের পালা।’ একটু ভাবুন, বণ্টনের ক্ষেত্রে ডানকে প্রাধান্য দেয়ার গুরুত্ব কতোবেশি।

ডান দিক বরকতময়:

ডান দিককে আরবি ভাষায় يمين বলা হয়। যার অর্থ হলো, বরকতময়। সুতরাং ডান দিক থেকে শুরু করাটাও হবে বরকতময়। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ডান হাতে খাও, ডান হাতে পান কর, ডান পায়ের জুতা প্রথমে পরিধান কর, চলার সময় ডান দিক থেকে চল। এমনকি রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ডান দিক থেকে চিরুনি চালাতেন, তারপর বাম দিক থেকে আঁচড়াতেন। তাঁর কাছে ডানের গুরুত্ব এতবেশি ছিলো। সুতরাং খাবারের মজলিসে বণ্টন করবে ডান দিক থেকে। ডান মানে নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সুন্নত। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সুন্নাতেই রয়েছে বরকত।

ডান দিকের গুরুত্ব:

অপর হাদীসে এসেছে, একবার রাসূলে কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের দরবারে কোনো পানীয় আনা হলো, তিনি পান করলেন। কিছু পানি অবশিষ্ট রয়ে গেল। তাঁর ডান পাশে উপবিষ্ট ছিল এক তরুণ। আর বাম পাশে ছিল এমন কিছু লোক যারা বয়সে ও জ্ঞানের দিক থেকে বড়। তিনি ভাবলেন, নিয়ম মত ডান পাশের তরুণটি আগে পাওয়ার উপযুক্ত। কিন্তু বাম পাশে যেহেতু বড়রা আছেন, তাদেরও মূল্যায়ন প্রয়োজন। তাই তিনি তরুণকে উদ্দেশ্য করে বললেন, যেহেতু তুমি ডানে আছ, তাই নিয়মের কথা হল অবশিষ্ট এ পানীয়টুকু তুমি পাবে কিন্তু তোমার বামে যেহেতু বড়রা আছেন, তাই তুমি অনুমতি দিলে এইটুকু পানীয় তাদেরকে দিয়ে দিতে পারি। তরুণটি ছিল অত্যন্ত বুদ্ধিমান। সে উত্তর দিল, ইয়া রাসূলাল্লাহ! অন্য ক্ষেত্রে হলে অবশ্যই আমি তাঁদেরকে অগ্রাধিকার দিতাম। কিন্তু পানীয়টুকু কার মুখের সেটাও তো দেখতে হবে। আপনার পবিত্র মুখের পানীয় আমি অন্য কাউকে দেব না। আমার অধিকার যেহেতু, সেহেতু আমাকেই দিন। অবশেষে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তরুণকেই দিলেন। এ তরুণ ছিলেন হজরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.)। (মুসলিম)

দেখুন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নিয়মের বিপরীত কাজ করেননি। অথচ আমরা লৌকিকতাবশত প্রতিনিয়ত নিয়ম পরিপন্থী কাজ করি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে

আরোও পড়ুন
সর্বশেষ
বিভক্তদের ‘এক’ করে সুন্দরভাবে ইজতেমা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বিভক্তদের ‘এক’ করে সুন্দরভাবে ইজতেমা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
রেস্টুরেন্ট ক্যাটাগরিতে গ্রেড পেতে না পেতেই অনিয়ম
রেস্টুরেন্ট ক্যাটাগরিতে গ্রেড পেতে না পেতেই অনিয়ম
কালীগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ১
কালীগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ১
মেঘনায় ট্রলার ডুবি অভিযান সমাপ্ত
মেঘনায় ট্রলার ডুবি অভিযান সমাপ্ত
চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ
চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ
সাতক্ষীরায় এমপি রবিকে সংবর্ধনা
সাতক্ষীরায় এমপি রবিকে সংবর্ধনা
মুন্সিগঞ্জে ট্রলার মালিক একদিনের রিমান্ডে
মুন্সিগঞ্জে ট্রলার মালিক একদিনের রিমান্ডে
সমঝোতা প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হওয়ায় ক্ষুব্ধ ট্রাম্প
সমঝোতা প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হওয়ায় ক্ষুব্ধ ট্রাম্প
যাত্রাবাড়ী থেকে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার
যাত্রাবাড়ী থেকে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার
নকলায় ১৪ জন গ্রেফতার
নকলায় ১৪ জন গ্রেফতার
বিনামূল্যের বই খোলা বাজারে বিক্রি, গ্রেফতার ১
বিনামূল্যের বই খোলা বাজারে বিক্রি, গ্রেফতার ১
বিক্রি কম, অপেক্ষা শুধু ছুটির দিনের!
বিক্রি কম, অপেক্ষা শুধু ছুটির দিনের!
ভাস্কর্য দুটি প্রধানমন্ত্রীকে দিতে চান নাসির
ভাস্কর্য দুটি প্রধানমন্ত্রীকে দিতে চান নাসির
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী লাইজু
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী লাইজু
শিশুর পাশে জেলা প্রশাসন
শিশুর পাশে জেলা প্রশাসন
রিজভীর বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জ আদালতে মামলা
রিজভীর বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জ আদালতে মামলা
বাবাকে নিয়ে আবেগাপ্লুত ফারিয়া
বাবাকে নিয়ে আবেগাপ্লুত ফারিয়া
খুলনায় মেয়র কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট
খুলনায় মেয়র কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট
ফেনীতে ৯৮০ বাহনের বিরুদ্ধে মামলা
ফেনীতে ৯৮০ বাহনের বিরুদ্ধে মামলা
ময়মনসিংহে নবজাতকের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেফতার ৩
ময়মনসিংহে নবজাতকের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেফতার ৩
১০ হাজার ইয়াবাসহ আটক তিন
১০ হাজার ইয়াবাসহ আটক তিন
শক্রুর আক্রোশ চারার ওপর!
শক্রুর আক্রোশ চারার ওপর!
ছয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিএসটিআই’র মামলা
ছয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিএসটিআই’র মামলা
রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৬৩
রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৬৩
জাতীয় স্কুল-কলেজ তায়কোয়ানডো চ্যাম্পিয়ন আকিজ স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং আদমজী কলেজ
জাতীয় স্কুল-কলেজ তায়কোয়ানডো চ্যাম্পিয়ন আকিজ স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং আদমজী কলেজ
ডিম না ভেঙ্গেই খোসার পুরুত্ব মাপা যাবে : বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
ডিম না ভেঙ্গেই খোসার পুরুত্ব মাপা যাবে : বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
২৮ কেজি গাজাসহ আটক ৩
২৮ কেজি গাজাসহ আটক ৩
জীবনের কথায় ‘১৯ এর শুভেচ্ছা’
জীবনের কথায় ‘১৯ এর শুভেচ্ছা’
পিরেজপুরে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম
পিরেজপুরে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম
জুড়ীতে এনসিসি ব্যাংকের শীতবস্ত্র বিতরণ
জুড়ীতে এনসিসি ব্যাংকের শীতবস্ত্র বিতরণ
সর্বাধিক পঠিত
নতুন হাইস্পিড রেলে ঢাকা থেকে ৫৪ মিনিটে চট্টগ্রাম
নতুন হাইস্পিড রেলে ঢাকা থেকে ৫৪ মিনিটে চট্টগ্রাম
বাংলাদেশের মাঝে এক টুকরো ‌'কাশ্মীর'!
বাংলাদেশের মাঝে এক টুকরো ‌'কাশ্মীর'!
সেলফিতে মাশরাফী দম্পতি
সেলফিতে মাশরাফী দম্পতি
‘মা’ গানে মাতালেন নোবেল, কাঁদালেন মঞ্চ (ভিডিও)
‘মা’ গানে মাতালেন নোবেল, কাঁদালেন মঞ্চ (ভিডিও)
এমপি হচ্ছেন মৌসুমী!
এমপি হচ্ছেন মৌসুমী!
মদের চেয়ে দুধ ক্ষতিকর: মার্কিন পুষ্টিবিদ
মদের চেয়ে দুধ ক্ষতিকর: মার্কিন পুষ্টিবিদ
এই রিকশাচালক ৩৪টি কোম্পানির প্রধান!
এই রিকশাচালক ৩৪টি কোম্পানির প্রধান!
পাসওয়ার্ড না দেয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারল স্ত্রী
পাসওয়ার্ড না দেয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারল স্ত্রী
স্ত্রীর ‘বিশেষ’ আবেদনে মলম মাখিয়ে বিপাকে স্বামী!
স্ত্রীর ‘বিশেষ’ আবেদনে মলম মাখিয়ে বিপাকে স্বামী!
সোমবার ‘চন্দ্রগ্রহণ’
সোমবার ‘চন্দ্রগ্রহণ’
বিয়েতে সৌদি নারীদের পছন্দের শীর্ষে বাংলাদেশি পুরুষরা!
বিয়েতে সৌদি নারীদের পছন্দের শীর্ষে বাংলাদেশি পুরুষরা!
ফুলশয্যার রাতে স্ত্রীর কাছে কী চায় স্বামী
ফুলশয্যার রাতে স্ত্রীর কাছে কী চায় স্বামী
ওটিতে রোগীর সামনেই অন্তরঙ্গে নার্স-চিকিৎসক, ভিডিও ভাইরাল
ওটিতে রোগীর সামনেই অন্তরঙ্গে নার্স-চিকিৎসক, ভিডিও ভাইরাল
মিলিয়ে দেখুন, ১৮৯৫ ও ২০১৯ এর ক্যালেন্ডার হুবহু
মিলিয়ে দেখুন, ১৮৯৫ ও ২০১৯ এর ক্যালেন্ডার হুবহু
শুধুই নারীসঙ্গ পেতে পর্যটকরা যেসব দেশে ভ্রমণ করেন
শুধুই নারীসঙ্গ পেতে পর্যটকরা যেসব দেশে ভ্রমণ করেন
ষাট বছরের বরের সঙ্গে ১৫ বছরের কনে!
ষাট বছরের বরের সঙ্গে ১৫ বছরের কনে!
শাহনাজের স্কুটি উদ্ধার, হিরো পুলিশ
শাহনাজের স্কুটি উদ্ধার, হিরো পুলিশ
গণিতে ভীত ছাত্রী এখন নাসার ইঞ্জিনিয়ার
গণিতে ভীত ছাত্রী এখন নাসার ইঞ্জিনিয়ার
বিয়ের খবর প্রকাশ করলেন সালমা
বিয়ের খবর প্রকাশ করলেন সালমা
বৃক্ষমানবের হাতে পায়ে ফের শেকড়
বৃক্ষমানবের হাতে পায়ে ফের শেকড়
শিরোনাম :
নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ে বিএনপি হিতাহিতজ্ঞান হারিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ে বিএনপি হিতাহিতজ্ঞান হারিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী মন্ত্রীদের সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রীদের সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী একাদশ জাতীয় সংসদের উদ্বোধনী অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের খসড়া মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক অনুমোদন একাদশ জাতীয় সংসদের উদ্বোধনী অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের খসড়া মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক অনুমোদন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৩৮ রানে হারাল রাজশাহী কিংস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৩৮ রানে হারাল রাজশাহী কিংস ২১ আগস্ট গ্রেনেড মামলা: হাইকোর্টে সাবেক ২ আইজিপির জামিন ২১ আগস্ট গ্রেনেড মামলা: হাইকোর্টে সাবেক ২ আইজিপির জামিন