ডাক্তার স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়া সেই স্ত্রী গ্রেফতার

ঢাকা, শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭,   ১২ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

ডাক্তার স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়া সেই স্ত্রী গ্রেফতার

পটুয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৫২ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

পটুয়াখালীতে পরকীয়ার জেরে ডাক্তার স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়ার মামলায় স্ত্রী সাবিনা আক্তার মমকে অবশেষে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে পটুয়াখালী সদর থানা পুলিশ।

শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

এর আগে ২৩ ডিসেম্বর ভিকটিম মনির হোসেনের বোন ডাক্তার মারইয়া আক্তার জলি বাদী হয়ে স্ত্রী ও তার ভাই পটুয়াখালী হেলথ কেয়ার ক্লিনিকের নার্স গায়িত্রী রানী দাস এবং বাসার গৃহপরিচারিকা শাবানাকে আসামি করে একটি মামলা করেন। 

ওই মামলায় বাদী উল্লেখ করেন ডাক্তার মনির হোসেনের স্ত্রী গত ৫ ডিসেম্বর পটুয়াখালীর বাসায় পারিবারিক কলহের জেরে তার ভাইয়ের পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়ে ময়লার বালতিতে ফেলে দেয়। খবর পেয়ে ওই রাতে মারাত্মক আহত অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পর দিন দুপুরে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

পরকীয়ার জেরে পটুয়াখালী পৌরসভার সাবেক মেয়র ডাক্তার শফিকুল ইসলাম পরিচালিত শহরের হেলথ কেয়ার ক্লিনিকের মালিক ডাক্তার মনির হোসেনের পুরুষাঙ্গ কেটে দেয় স্ত্রী সাবিনা আক্তার মম। পরকীয়ার জেরে র্দীঘদিন ধরে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে কলহ চলে আসছিল। ওই ঘটনার দিন স্ত্রী নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ