Alexa ট্রাম্পের অভিশংসন বিচারের জন্য ১০০ সিনেটরের শপথ

ঢাকা, সোমবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ১১ ১৪২৬,   ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

ট্রাম্পের অভিশংসন বিচারের জন্য ১০০ সিনেটরের শপথ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২৬ ১৭ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৩:২৯ ১৭ জানুয়ারি ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু করতে শপথ নিয়েছেন উচ্চকক্ষ সিনেটের ১০০ আইন প্রণেতা। বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি জন রবার্টস নিরপেক্ষ বিচারের জন্য তাদেরকে শপথ বাক্য পড়ান।

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের বরাত দিয়ে বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি জন রবার্টস এবং সিনেটরদের শপথ গ্রহণের পরপরই এই শুনানি শুরু হয়। উপস্থিত সিনেটর এবং বিচারপতিরা সিদ্ধান্ত নেবেন ট্রাম্পকে পদ থেকে সরানো হবে কিনা।

আগামী ২১ জানুয়ারি এ বিচার শুরু করার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এর আগে গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে ট্রাম্পকে অভিশংসনের প্রস্তাব পাস হয়। এরপরই তা চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য উচ্চকক্ষ সিনেটে ওঠে।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার এবং কংগ্রেসের কাজে বাধা দেয়ার দুটি অভিযোগ আনা হয়েছে। তবে ট্রাম্প সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এর আগে গত বুধবার কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে আনুষ্ঠানিকভাবে ভোটাভুটির পর অভিশংসন-সংক্রান্ত প্রস্তাব ও নথিপত্র সিনেটে পাঠানো হয়। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে দুটি অভিযোগের পক্ষে ভোট পড়ে ২২৮টি আর বিপক্ষে পড়ে ১৯৩টি।

এ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেন, এর মধ্যদিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ইতিহাস সৃষ্টি করলেন তারা।

বৃহস্পতিবার সিনেটের সার্জেন্ট অব আর্মস মাইকেল স্টেঞ্জার উচ্চকক্ষের কার্যক্রম শুরু করেন। এরপর ডেমোক্রেট কংগ্রেসম্যান ও মামলার প্রধান বাদী অ্যাডাম স্কিফ প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ পড়ে শোনান। এ সময় সিনেট কক্ষের ওয়েলে উপস্থিত ছিলেন প্রতিনিধি পরিষদের গোয়েন্দাবিষয়ক কমিটির প্রধান অ্যাডাম স্কিফসহ প্রতিনিধি পরিষদের সাত সদস্য।

অভিযোগ পড়ে শোনানোর পর প্রধান বিচারপতি রবার্টস সিনেটরদের নিরপেক্ষভাবে বিচার করতে শপথ পড়ান। এরপর সিনেটের নেতা মিচ ম্যাককনেল প্রেসিডেন্টের অভিশংসন বিচার-পূর্ব প্রক্রিয়া মুলতবি করেন এবং আগামী মঙ্গলবার বিচার শুরুর ঘোষণা দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্প প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হন। এর আগে অ্যান্ড্রু জনসন এবং বিল ক্লিনটন প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হলেও সিনেটে উতরে যান। সিনেটে রিপাবলিকানরা সংখ্যাগরিষ্ঠ হওয়ার ট্রাম্পও বিচারে জয়ী হয়ে যেতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। প্রেসিডেন্টকে অভিশংসনের জন্য সিনেটের দুই-তৃতীয়াংশ ভোট লাগবে। সিনেটে ট্রাম্পের পক্ষ লড়াইয়ের জন্য প্রতিনিধিদলের ঘোষণা এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে আসেনি। তবে হোয়াইট হাউসের আইনজীবী প্যাট সিপোলোনি এবং জে সেকুলো এতে নেতৃত্ব দিতে পারেন বলে জানা গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ