Alexa জেএমবির এজাহার সদস্য আটক

ঢাকা, শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৬ ১৪২৬,   ২১ মুহররম ১৪৪১

Akash

জেএমবির এজাহার সদস্য আটক

 প্রকাশিত: ২০:৪৯ ৩০ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ২০:৫৩ ৩০ আগস্ট ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাজধানীতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) এজাহার পদের এক সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তার নাম মো. আবদুর রাজ্জাক (২৫)। 

যাত্রাবাড়ী বাস স্ট্যান্ড থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টায় তাকে আটক করে র‌্যাব-১০। এ সময় তার কাছ থেকে জঙ্গিবাদের বই, প্রচারপত্র ও সমরাস্ত্র প্রশিক্ষণের ম্যানুয়াল উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-১০ এর এএসপি আশরাফি তানজিনা ডেইলি বাংলাদেশকে জানান, গোয়েন্দা তথ্যে জানা যায়, জেএমবি’র এক সদস্য যাত্রাবাড়ী বাস স্ট্যান্ড হয়ে দক্ষিণাঞ্চলে যাবে। তাৎক্ষণিক  ক্রাইম প্রটেকশন কোম্পানী (সিপিসি)-১ এর কমান্ডার মুহম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী’র নেতৃত্বে  র‌্যাবের একটি চৌকশ দল সকালে ওই বাসস্ট্যান্ডে ওৎ পেতে থাকে। এ সময় আবার গোয়েন্দা তথ্য আসে, মাওয়াগামী বাসে জঙ্গি সদস্যটি ঢাকা ছাড়বে। পরে মাওয়ার দিকে যাওয়ার পথে দ্রুত চেকপোস্ট বসানো হয়। ইলিশ বাস কাউন্টারের সমানে সন্দেহজনক ব্যক্তিদের তল্লাশি করা হয়। এমন সময় এক জন লোকের (আব্দুর রাজ্জাক) আচরণে সন্দেহ হলে তাকে ঘেরাও করে র‌্যাব সদস্যরা। 

এ সময় ওই সন্দেহভাজন ব্যক্তি টিকিট নিচ্ছিলেন। পরে তল্লাশি করে তার কাছ থেকে জঙ্গিবাদের বই, রাষ্ট্র ও সরকার বিরোধী প্রচারপত্র ও সমরাস্ত্র প্রশিক্ষণের ম্যানুয়েল পাওয়া যায়।

এএসপি তানজিনা আরো জানান, আটক রাজ্জাকসহ এ জঙ্গি সংগঠনের সদস্যরা গত ৩১ জুলাই সূত্রপুরে মিলিত হয়েছিল। র‌্যাব সদস্যরা নাশকতার পরিকল্পনা ও প্রস্তুতির বিষয়ে বৈঠক করার সময় গোপন সংবাদে র‌্যাব তাদেরকে ঘেরাও করে ফেলে। কিন্তু তখন সে পালিয়ে যায়। 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক রাজ্জাক জানায়, তিনি এলাকায় ছাগলের ব্যবসা করেন। তার অপর সহযোগী সাকিব গ্রাম্য চিকিৎসকের কাজ করেন। তারা এসবের আড়ালে জেএমবির প্রচার প্রচারণা ও সদস্য সংগ্রহের কাজ করতেন। তারা টার্কি মুরগির ব্যবসার প্রশিক্ষণের নামে দুর্গম চরাঞ্চলে সদস্যদের সমরাস্ত্র প্রশিক্ষণসহ জঙ্গি কার্যক্রম পরিচালনা করেন। সে বর্তমান রাষ্ট্র ব্যবস্থায় বিশ্বাস করে না। ইসলামী শাসন ব্যবস্থার জন্য জঙ্গি সংগঠন জেএমবিতে যোগ দেয় সে। 

ফরিদপুর জেলার শিবচরে আবদুর রাজ্জাকের বাড়ি। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও জানান এএসপি তানজিনা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এসআই