Alexa জিয়া রাজাকার পুনর্বাসন করেছিল

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ১ ১৪২৬,   ১২ জ্বিলকদ ১৪৪০

জিয়া রাজাকার পুনর্বাসন করেছিল

রাজৈর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৭:৫৫ ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৮:০৪ ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

জিয়াউর রহমান যেমন শাহ মোয়াজ্জেমকে প্রধানমন্ত্রী করে রাজাকার পুনর্বাসন করেছিল, তার স্ত্রী যেভাবে জামায়াতের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলেছিল ঠিক তেমনিভাবে আজ তার ছেলেও জামায়াতকে ২৫ টি আসনে ধানের শীষ প্রতীক দিয়ে যুদ্ধাপরাধীদের পুনর্বাসন করছে।

এ অভিযোগ করেছেন মাদ্রীপুর-১ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী নূর-ই আলম চৌধুরী। 

বুধবার উপজেলার উমেদপুর ইউপির চান্দেরচর বাজারে নির্বাচনী পথসভায় তিনি এ অভিযোগ তুলেন। 

এছাড়াও একইদিন তিনি ৮টি পথসভা ও উঠান বৈঠকে অংশ নেন। এসব কর্মসূচিতে হাজার হাজার নেতা কর্মী অংশ নেন। 

এসময় মাদারীপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিয়াজউদ্দিন খান, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি মুনির চৌধুরী, সহসভাপতি সুজিৎ চ্যাটার্জী , সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, শিবচর পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন খান, মাদারীপুর পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ , উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সেলিম, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জেল হোসেন খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

কর্মসূচিরর শুরুতেই তিনি উপজেলার কুতুবপুর বাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত দোকানগুলো পরিদর্শন করেন।

আওয়ামী লীগ সংসদীয় পার্টির এ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ যে নির্বাচনী ইতশেহার দিয়েছে তাতে নতুন প্রজন্মের ভবিৎষত নিয়ে কথা বলা হয়েছে। মানুষের কর্ম সংস্থানের কথা বলা হয়েছে, প্রতিটি উপজেলা কিভাবে উন্নত হবে, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করার কথা বলা হয়েছে।

আর বিএনপি যে ইশতেহার দিয়েছে তাতে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের কোনো কথা বলা হয়নি। এতেই বোঝা যায় তারা ক্ষমতায় গেলে ২০০১ সালে যেভাবে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার বন্ধ করে দিয়েছিল ঠিক সেভাবেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রক্রিয়াও তারা বন্ধ করে দিবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ