Alexa জামায়াত উৎখাতের প্রতিশ্রুতি আউয়ালের

ঢাকা, শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৮ ১৪২৬,   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

জামায়াত উৎখাতের  প্রতিশ্রুতি আউয়ালের

 প্রকাশিত: ২০:১৩ ৭ জুন ২০১৮   আপডেট: ২০:৩২ ৭ জুন ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দশম নির্বাচনে পিরোজপুর-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী একেএমএ আউয়াল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হন।

আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি উভয় দলেই এখন প্রার্থীতা নিয়ে শুরু হয়েছে নয়া জল্পনা-কল্পনা। রয়েছেন একাধিক মনোনয়নপ্রত্যাশী। এক্ষেত্রে সংসদীয় আসনে পুরানো অনেক প্রার্থী নানা ইমেজ সংকটে পড়েছেন। অনেক প্রার্থী এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। ফলে এবার নতুন সম্ভাব্য প্রার্থীরা ইতিমধ্যে ব্যনার, ফ্যাস্টুন, বিভিন্ন শুভে”ছা পোষ্টার দিয়ে প্রার্থীতার যানান দিচ্ছেন।

জেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা হালে খুব একটি স্বস্তিতে নেই। নির্বাচনের দিনক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে ততই প্রবল হয়ে উঠতে শুরু করেছে পিরোজপুর-১ আসনের মনোনয়ন ঘিরে নানা গুঞ্জন।

কেউই নির্দিষ্টভাবে বলতে পারছেন না একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কে পাচ্ছেন পিরোজপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন।

Pirojpur

তবে দলের মধ্যে, দলের বাইরে থেকে পাওয়া তথ্যে বেশ ক’জন প্রার্থী হওয়ার গুঞ্জন রয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল, সুপ্রীম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী শম রেজাউল করিম, জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি ও পৌর মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক সাবেক এমপি এবং বিশিষ্ট আইনজীবী প্রয়াত এনায়েত হোসেন খানের জেষ্ঠ কন্যা শেখ এ্যানি রহমান, প্রয়াত সংসদ সদস্য শুধাংশু শেখর হালদারের স্ত্রী ও সাবেক মহিলা এমপি সাধনা রানী হালদার, সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শাহ আলম ও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসাহাক আলী খান পান্না, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ আহবায়ক শফিউল হক মিঠু, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ সাকিব বাদশার নাম শোনা যাচ্ছে।

 পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক বলেন, ১৯৭৫ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর জেলা আওয়ামী লীগকে আমিই সংগঠিত করেছিলাম। দীর্ঘ বছর জেলা আওয়ামী লীগের দায়ীত্বশীল পদ দখল না করে দলীয় সকল কর্মসূচিতে অকুণ্ঠ সহযোগিতা দিয়েছি। আজ যখন এমপি দলের নেতাকর্মী ও জনগণের আস্থা হারিয়েছেন তখন আবার আওয়ামী লীগের হাল ধরেছি। আগামী নির্বাচনে দলের কাছে মনোনয়ন চাইব। নেত্রী যদি মনোনয়ন দেন, তাহলে দলকে বিজয় উপহার দেব।

শ.ম. রেজাউল করিম বলেন, ছাত্র জীবন থেকেই আমি রাজনীতিতে জড়িত। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দেবেন বলে বিশ্বাস করি।

পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল বলেন, এই আসনকে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির হাত থেকে ফিরিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিয়েছি। যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর বাড়ির এলাকা হলেও জামায়াতকে এই এলাকা থেকে উৎখাত করে আওয়ামী লীগের নগরে তৈরি করেছি। আগামীতে সভানেত্রী শেখ হাসিনা যদি আবার মনোনয়ন দিলে আবার এই আসনটি আওয়ামী লীগের হয়ে তাকে উপহার দিতে পারবো।

বিএনপির নেতারাও পুরোদমে আছেন মাঠে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা গণসংযোগ শুরু করেছেন অনেক আগ থেকেই।

এই আসনে জামায়াত রাজনৈতিকভাবে শক্তিশালী হলেও, দলীয় সরকার ক্ষমতায় থাকার পরও বিএনপি সাংগঠনিকভাবে তেমন শক্তিশালী হতে পারেনি। ফলে জামায়াতের প্রতি বিএনপির নেতাকর্মীদের অনেক ক্ষোভ রয়েছে। 

এই আসনে থেকে জেলা বিএনপির সভাপতি গাজী নুরুজ্জামান বাবুল, সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, ব্যারিষ্টার মেজর (অব.) এম. সরোয়ার হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম খান, নৌযান ব্যবসায়ী ফখরুল আলম এবং মহিলা নেত্রী এলিজা জামান মনোনয়ন প্রত্যাশা করেন। অন্যদিকে বিএনপি জোট থেকে মনোনয়ন আশা করেন জোটের অন্যতম শরীক জাতীয় পার্টির (জাপা-কাজী জাফর) মহাসচিব ও সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা জামাল হায়দার এবং দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ছেলে শামীম সাঈদী অথবা আরেক ছেলে মাসুদ সাঈদী।

জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল্লাহ শহীদ বলেন, ২০ দলীয় জোট থেকে মনোনয়নের বিষয়টি কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত। তা না হলে আমাদের স্থানীয় সিদ্ধান্ত হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ

Best Electronics
Best Electronics