জাফরের বিরুদ্ধে লড়বেন সালাহউদ্দিন পত্নী

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২১ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৬,   ১৫ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

জাফরের বিরুদ্ধে লড়বেন সালাহউদ্দিন পত্নী

কক্সবাজার প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৯:১৩ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৯:১৩ ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

কক্সবাজার-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম। জাফর আলমের বিরুদ্ধে লড়বেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদের স্ত্রী হাসিনা আহমেদ।

জাফর আলম দক্ষিণ চট্টলায় আওয়ালীগের মনোনিত প্রার্থীদের মধ্যে কর্মীবান্ধব ও জনপ্রিয় নেতা হিসেবে পরিচিত।

অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সালাহ উদ্দিন আহমদ সিআইপিকে পরাজিত করে এমপি নির্বাচিত হন। পরে যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন।

নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুর্নীতির মামলায় সাজা হওয়ায় সালাহউদ্দিন আহমেদ নির্বাচন করতে পারেননি। তখন তার স্ত্রী হাসিনা আহমেদ প্রথম বারের মত স্বামীর বদলে নির্বাচন করেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ দেশে ফিরতে না পারায় আবারো হাসিনা আহমেদকে দল থেকে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। 

তবে ভিন্নভাবে দেখছে ভোটাররা। বিএনপির প্রার্থী হাসিনা আহমেদ এবার ভোটে লড়বেন দক্ষিণ চট্টলার আওয়ামী লীগের সবচেয়ে শক্তিশালী ও জনপ্রিয় প্রার্থী হিসেবে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলমের সঙ্গে। তাই এবার বিএনপির প্রার্থী অনেক আগে থেকে মাঠে নেমে পড়েছে। এ আসনটি এক সময় বিএনপির শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত থাকলেও সালাহ উদ্দিন এলাকায় না থাকার সুবাধে মাঠে নেতৃত্ব শূন্য হয়ে পড়েছে। মামলার বেড়াজালে নেতাকর্মীরাও অনেকটা আটকা পড়ে গেছে।

ভোটাররা ধারণা করছেন, বিএনপির প্রার্থীর তুলনায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী অনেক বেশী শক্তিশালী। হাসিনা আহমেদ এমপি থাকাকালিন সময় পাঁচ বছর এলাকায় উন্নয়ন করতে পারেনি এবং এলাকার জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন ছিলেন। তেমনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হওয়া মৌলভী ইলিয়াছও দৃশ্যমান কোন উন্নয়ন করতে পারেননি। পক্ষান্তরে জাফর আলম চকরিয়া উপজেলা পরিষদের দায়িত্বপালন কালে এলাকায় ব্যপক উন্নয়ন করেন।

বিএনপির মনোনিত (ঐক্যফ্রন্ট) প্রার্থী সাবেক এমপি হাসিনা আহমেদ বলেন, ‘আমার স্বামী সালাহ উদ্দিন আহমদ রাজনীতির মাধ্যমে চকরিয়া-পেকুয়ার গণমানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। আমিও এ আসনে এমপি ছিলাম। সে সুবাধে ভোটারদের সঙ্গে আমার পূর্ব পরিচিত রয়েছে। আশা করি এবারও ভোটাররা আমাকে ভোট দিয়ে এমপি নির্বাচিত করবেন।’ 

আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী আলহাজ্ব জাফর আলম বলেন, ‘বর্তমান সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সাধারণ ভোটাররা নৌকায় ভোট দেওয়ার অপেক্ষায় বসে আছে। চকরিয়া-পেকুয়া আসনে এবার নৌকা বিপুল ভোটে বিজয়ী হবে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এ আসনটি উপহার দেবো।’

ডেইলি বাংলাদেশ/এসকে

Best Electronics