Alexa জবি শিক্ষক সমিতির নতুন কমিটি

ঢাকা, বুধবার   ২১ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৭ ১৪২৬,   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

জবি শিক্ষক সমিতির নতুন কমিটি

জবি প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৮:৩০ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৮:৩০ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচন ২০১৯-এ ২৬৭ ভোট পেয়ে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. দীপিকা রাণী সরকার সভাপতি এবং ৩০২ ভোট পেয়ে মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. নূর মোহাম্মদ সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২.৩০টা পর্যন্ত   বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

৩৩৮ ভোট পেয়ে সহ-সভাপতি পদে সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, ২৮৪ ভোট পেয়ে কোষাধ্যক্ষ পদে মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ মাহফুজ এবং ২৬৬ ভোট পেয়ে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শামছুল কবির নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়াও সদস্য পদে ৩০২ ভোট পেয়ে রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবদুস সামাদ, ২৯৫ ভোট পেয়ে প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রভাষক মোঃ মাসুদ রানা, ২৯৩ ভোট পেয়ে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মনিরুজ্জামান খন্দকার, ২৮৮ ভোট পেয়ে শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট এর অধ্যাপক ড. মনিরা জাহান, ২৮৮ ভোট পেয়ে একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাবিতা সাবাহ্ , ২৬৮ ভোট পেয়ে লোক প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রিতু কুন্ডু, ২৬৪ ভোট পেয়ে আইন বিভাগের প্রভাষক মোঃ মেফতাহুল হাসান, ২৫৭ ভোট পেয়ে সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল হোসেন, ২৫১ ভোট পেয়ে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোবারক হোসেন এবং ২৪৬ ভোট পেয়ে আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউট এর সহকারী অধ্যাপক মোঃ নিয়াজ আলমগীর নির্বাচিত হয়েছেন।

শিক্ষক সমিতির নির্বাচন এর প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সুরঞ্জন কুমার দাস ফলাফল ঘোষণা করেন। নির্বাচনে কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শাহরিয়ার আহম্মদ, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাবিনা শরমীন, ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ মমিন উদ্দীন এবং ভুগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খন্দকার তানভীর হোসেন।

নির্বাচনে ৬৫৪ জন ভোটারের মধ্যে ৪৯২ জন শিক্ষক তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ

Best Electronics
Best Electronics