Exim Bank Ltd.
ঢাকা, সোমবার ২৩ জুলাই, ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫

‘জঙ্গি হিসেবে কাউকে মেরে ফেলা হলে দায় ঢাবি উপাচার্যের’

নিজস্ব প্রতিবেদকডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
ফাইল ছবি

কোটা আন্দোলনকারী ছাত্রছাত্রীদের ‘জঙ্গি’ বলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নেতারা।

আইনজীবী সমিতির সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, অবিলম্বে উপাচার্যের পদত্যাগ করা উচিত। তাকে প্রমাণ করতে হবে যে ছাত্ররা জঙ্গি। জঙ্গি হিসেবে এখন কাউকে মেরে ফেলা হলে এর দায় ভিসিকে নিতে হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ কথা বলেন।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদিন বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনকে যখন সবাই যৌক্তিক আন্দোলন হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে, তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছাত্রছাত্রীদের জঙ্গি আখ্যা দিয়ে তাদের জঙ্গি সংগঠনের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। কোটা আন্দোলনে জঙ্গি সম্পৃক্ততা আছে—এ কথা বলে উপাচার্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে কলঙ্কিত করেছেন।

লিখিত এক বক্তব্যে জয়নুল আবেদিন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢোকার অধিকার সবার আছে। কিন্তু ছাত্রছাত্রীদের ঢালাওভাবে জঙ্গি সম্পৃক্ততার কথা বলে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢোকার পথ বন্ধ করার আদেশ উপাচার্যের স্বেচ্ছাচারিতা। এটা তিনি করতেই পারেন না।

সংবাদ সম্মেলনে কোটা সংস্কারের গেজেট প্রকাশের দাবি জানিয়ে মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কোটা বাতিল ঘোষণার পর পুলিশের সামনে আন্দোলনকারী ছাত্রছাত্রীদের হাতুড়ি দিয়ে পেটাচ্ছে ছাত্রলীগ, প্রকাশ্যে নারীদের নির্যাতন করা হচ্ছে। এ নিয়ে সরকারের কেউ কোনো কথা বলছেন না। আমরা এর নিন্দা জানাই।

আন্দোলনকারী ছাত্রছাত্রীদের গ্রেফতার না করার দাবি জানিয়ে জয়নুল আবেদিন বলেন, আমরা দেখছি, মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার ছাত্রছাত্রীদের ৫ দিন, ১০ দিন করে রিমান্ডে নেয়া হচ্ছে। গ্রেফতার করা সব ছাত্রকে বিনা পয়সায় আইনি সহায়তা দেবে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি।

এ সময় আন্দোলনকারীদের ওপর যারা হামলা করেছেন, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন সমিতির নেতারা। সংবাদ সম্মেলনে আইনজীবী সমিতির সহসভাপতি গোলাম মোস্তফা, গোলাম রহমান ভূঁইয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত রোববার নিজ কার্যালয়ে কোটা আন্দোলন নিয়ে সাংবাদিকদের কাছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) আখতারুজ্জামান বলেন, তালেবান জঙ্গিরা বিভিন্ন গোপন আস্তানা থেকে যে রকম উসকানিমূলক ভিডিও বার্তা পাঠায়, তার অবিকল উগ্র চরমপন্থী মতাদর্শী প্রচারণামূলক ভিডিও আমি নিজে দেখেছি। উপাচার্য বলেন, তালেবান নেতা মোল্লা ওমর ও ওসামা বিন লাদেনের মতো ভিডিও বার্তা পাঠানো হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, জঙ্গিরা যেভাবে শেষ অস্ত্র হিসেবে নারীদের ব্যবহার করে, সেভাবে কোটা আন্দোলনেও ছাত্রীদের ব্যবহার করা হচ্ছে। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় এসব মেনে নেবে না। ফৌজদারি অপরাধ করলে আইনের শাসন কার্যকর হতে হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই

আরও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
চার মাসের ‘গর্ভবতী’ বুবলী!
জাবির 'এইচ' ইউনিটের ফল প্রকাশ
বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিসা সেন্টার এখন ঢাকায়
শাকিবের সঙ্গে বিয়ে, যা বললেন নায়িকা বুবলী
ক্যামেরায় সম্পূর্ণ নগ্ন হয়েছেন এই অভিনেত্রীরা, কারা এরা?
ভেঙে গেলো পূর্ণিমার সংসার, পাল্টা জবাবে যা বললেন নায়িকা
মায়ের জিন থেকেই শিশুর বুদ্ধি বিকশিত হয়!
বিদ্যুৎ বিল কমিয়ে নেয়ার কিছু টিপস
ব্যর্থ হলো মার্কিন ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী পরীক্ষা
এইচএসসি'র ফল জানা যাবে যেভাবে
ধর্ষণের কবলে মৌসুমী হামিদ, ধর্ষক গাড়িচালক!
চীনের মধ্যস্থতায় তথ্য আদান-প্রদানে সম্মত পাকিস্তান-আফগানিস্তান
বিশ্বকাপের সব গোল্ডেন বল জয়ীরা
গৌরিকে নিয়ে ভক্তের প্রশ্ন, উত্তর দিলেন শাহরুখ!
দেহব্যবসার জন্যেই নতুন বাড়িতে শাহিদ দম্পত্তি!
প্রায় ৬ হাজার বছর পূর্বের বিস্ময়কর প্রেম কাহিনী!
‘দর্শকরাই জানেন কখন দেবেন তালি, কখন গালি’
যেসব দেশে কোনো নদী নেই
মহান আল্লাহ তাআলা যাদের প্রতি সন্তুষ্ট
আমি বিশ্বের সেরা ক্লাবটিই বেছে নিয়েছি
শিরোনাম:
নাশকতার মামলায় খালেদার জামিন আবেদন কুমিল্লার আদালতকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ হাইকোর্টের কোটা ইস্যুতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সহিংসতার চার মামলা প্রতিবেদন ৫ সেপ্টেম্বর রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠক আজ ঢাকার চারদিকে হবে এলিভেটেড রিং রোড: প্রধানমন্ত্রী বন্ধ হয়ে গেলো বড়পুকুরিয়া বিদ্যুৎকেন্দ্র