Exim Bank
ঢাকা, শনিবার ২৩ জুন, ২০১৮
Advertisement

ছারছীনা দরবার শরীফে ১২৭ তম বার্ষিক মাহফিল

 এস এম মুর্শিদ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:৫৮, ১০ মার্চ ২০১৮

২৩০ বার পঠিত

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ছারছীনা দরবার শরীফের তিনদিনব্যাপী ১২৭ তম বার্ষিক মাহফিল রোববার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে।

শতাব্দীর ঐতিহ্যধন্য ইসলামী শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র, সুন্নতে নববীর উপর প্রতিষ্ঠিত ছারছীনা দরবার শরীফের কুত্ববুল আলম আল্লামা শাহ্ সূফী মাওলানা নেছারুদ্দীন আহমদ (রহ.) এবং মুজাদ্দিদে জামান শাহ্ সূফী মাওলানা আবু জাফর মোহাম্মদ ছালেহ (রহ.) এর ঈছালে ছওয়াব ও মাদ্রাসার বার্ষিক মাহফিল ও বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহ সম্মেলন আগামী ১১, ১২ ও ১৩ মার্চ রোজ রোববার, সোমবার ও মঙ্গলবার ছারছীনা দরবার শরীফের বিশাল ময়দানে শুরু হবে।

মাহফিলের তিনদিন পবিত্র কোরআন ও হাদীসের আলোকে গুরুত্বপূর্ণ ওয়াজ করবেন-দরবারের ওলামা, খোলাফা, ছারছীনা আলিয়া ও দ্বীনিয়া মাদ্রাসার সুযোগ্য আসাতেজায় কেরামগণ।

প্রত্যহ বাদ মাগরীব ও বাদ ফজর লাখো লাখো ভক্ত-মুরীদানের উদ্দেশে মূল্যবান নসীহত ও ইলমে মা’রেফতের তা’লীম এবং মঙ্গলবার বাদ জোহর দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করবেন ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.)।

উল্লেখ্য, এদেশে ইসলাম ব্যাপক প্রচার ও প্রসারে ছারছীনা দরবারের ভূমিকা ও অবদান অবিস্মরণীয়।

ছারছীনা দরবার ও বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহ একটি ত্বরীকা ভিত্তিক অরাজনৈতিক দ্বিনী সংগঠন হলেও রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে ইসলাম প্রতিষ্ঠায় এ দরবার অনন্য ভূমিকা পালন করেছে এবং এখনো করছে।

ছারছীনা দরবারের প্রতিটি কার্যক্রমই পবিত্র কোরআন-সুন্নাহ মোতাবেক পরিচালিত হচ্ছে। এ দরবারে শেরেক, বেদআতের কোন স্থান নেই। বরং শেরেক ও বেদআত নির্মুলের জন্যই এ দরবার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

ইতোমধ্যেই মাহফিলের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। দূর-দুরান্ত থেকে পীর-ভাই, মুহিব্বিন ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ ছারছীনা শরীফে আসতে শুরু করেছেন।

ছারছীনার উদ্দেশ্যে রিজার্ভ বাস ও লঞ্চ:
ছারছনিার মাহফিলের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন স্থান থেকে রিজার্ভ লঞ্চ ছেড়ে যাবে- শনিবার ঢাকা সদরঘাট ২নং ঘাট থেকে বাদ মাগরীব এম.ভি রাজদূত-৭, নারায়ণগঞ্জ লঞ্চঘাট থেকে বিকাল ৪ টায় মানিক-৯, চাঁদপুর পুরাতন লঞ্চঘাট থেকে রাত ১১ টার সময় মর্ণিং সান-৯ ছেড়ে যাবে।

এছাড়াও রোববার চাঁদপুর মাদ্রাসা ঘাট থেকে বন্ধন-৭ ও হাইমচর তেলির মোড় ঘাট থেকে তরিকা-২ সকাল ৭ টায় ছেড়ে যাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে/এডি

সর্বাধিক পঠিত