ছাত্রী হলে নির্বাচিত বেশিরভাগই স্বতন্ত্র প্যানেলের

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৬,   ১৮ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

ছাত্রী হলে নির্বাচিত বেশিরভাগই স্বতন্ত্র প্যানেলের

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৩৫ ১২ মার্চ ২০১৯  

সংগৃহিত

সংগৃহিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পাঁচ ছাত্রী হলের চারটিতে ভিপিসহ বেশিরভাগ পদেই নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। পাশাপাশি তিনটি হলে জিএস পদেও সাধারণ শিক্ষার্থীদের স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। 

ফল অনুযায়ী শামসুন্নাহার, কবি সুফিয়া কামাল ও বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলের ভিপি-জিএস উভয় পদেই নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। এছাড়া বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের ভিপি পদ জিতেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী রিকি হায়দার আশা। এসব হলের অন্যান্য পদেও স্বতন্ত্রদের অনেকে জয়ী হয়েছেন।

শামসুন্নাহার হলে ভিপি, জিএস ও এজিএসসহ ১৩টি পদের ৮টিতেই স্বতন্ত্ররা নির্বাচিত হয়েছেন। বাকিগুলোতে ছাত্রলীগের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। হলটিতে ভিপি পদে নির্বাচিত হয়েছেন শেখ তাসনীম আফরোজ ইমি, জিএস পদে আফসানা ছপা ও এজিএস ফাতিমা আক্তার। স্বতন্ত্র প্যানেলটি ছিল ৮ জনের। এরা সবাই কোটা সংস্কার আন্দোলনের শিক্ষার্থী।

ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন সাধারণ শিক্ষার্থীদের স্বতন্ত্র প্যানেলের রিকি হায়দার আশা। তিনি ছাত্রলীগের প্রার্থী কোহিনুর আক্তার রাখিকে পরাজিত করেন। ওই হলে সাধারণ সম্পাদক পদে ছাত্রলীগের সারা বিনতে জামাল জয়ী হন। হলটিতে ১০ পদে ছাত্রলীগ জয়ী হলেও রিকির মতো সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে তাসলিন হালিম মিম ও সাহিত্য সম্পাদক পদে খাদিজা জয়ী হন। দুজনই সাধারণ শিক্ষার্থীদের স্বতন্ত্র প্যানেলের প্রার্থী।

কুয়েত মৈত্রীতে সহসভাপতি (ভিপি) ও সাধারণ সম্পাদকসহ (জিএস) পাঁচ পদে জয় পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। ভিপি হয়েছেন সুস্মিতা কুণ্ডু, জিএস হয়েছেন সাগুফতা বুশরা। বাকি আট পদে জিতেছেন ছাত্রলীগের প্রার্থীরা। নির্বাচনে সাতটি পদে প্রার্থিতা রেখে স্বতন্ত্র প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে জয় পেয়েছেন পাঁচ জন। স্বতন্ত্র থেকে বিজয়ী অন্যরা হলেন সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) মুন্নী আক্তার, সাহিত্য সম্পাদক সাহরীন সুলতানা ইরা ও অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া সম্পাদক জয়নব আক্তার।

বেগম রোকেয়ায় ছাত্রলীগ মনোনীত প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। হলটির ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন ইশরাত জাহান তন্বী। জিএস নির্বাচিত হয়েছেন সায়মা আক্তার প্রমি এবং এজিএস নির্বাচিত হয়েছেন ফাল্গুনি দাস তন্নি।

কবি সুফিয়া কামাল হলে ভিপি ও জিএস পদে জয় পেয়েছে স্বতন্ত্র প্যানেলের প্রার্থীরা। এখানে ছাত্রলীগ মনোনীত প্রার্থীকে হারিয়ে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন তানজিনা আক্তার সুমা। একইভাবে স্বতন্ত্র প্রার্থী মুনিরা শারমিন নির্বাচিত হয়েছেন জিএস।

তবে ছাত্রদের ১২টি হলের মধ্যে ১০টিতেই জিতেছেন ছাত্রলীগের প্রার্থীরা। অমর একুশে হল ও ফজলুল হক হলে ভিপি পদে নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মেহেদী হাসান সুমন ও মাহমুদুল হাসান তমাল।

ডেইলি বাংলাদেশ/এলকে

Best Electronics