Alexa চ্যাম্পিয়নস ট্রফি নিয়ে কি ভাবছেন তারকারা?

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৬ ১৪২৬,   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

চ্যাম্পিয়নস ট্রফি নিয়ে কি ভাবছেন তারকারা?

 প্রকাশিত: ১৩:২৬ ২ জুন ২০১৭  

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির উত্তাপটা শুটিং স্পটেও এসে পড়বে সেটা অনুমেয়। এমনও হয়, ম্যাচের উত্তেজনায় শুটিং বন্ধ করে খেলা দেখা চলে। ক্রিকেট নিয়ে তারকাদের উম্মাদনার শেষ নেই। প্রিয় দল বাংলাদেশ নিয়ে তাদের ভাবনাগুলো বলেছেন তারকারা- তারিক আনাম খান বাংলাদেশ এখন এমন একটি টিম, যে বিশ্বের যেকোনো ক্রিকেট টিমকে হারাতে পারে। সেই যোগ্যতা আমাদের হয়েছে। তাই এ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ঘিরে সবার মতো আমার প্রত্যাশাও একটু বেশি। এখন আর ভাবার সময় নেই কে প্রতিপক্ষ। প্রথম ম্যাচ ইংল্যান্ডের সঙ্গে। যে দলটাকে বাংলাদেশ হারানোর ক্ষমতা রাখে তা বহুবার প্রমাণ করা হয়েছে। ভালো করতেই হবে। কোটি বাঙালি তাদের প্রিয় দলটির সঙ্গে আছে। প্রিয় খেলোয়াড় তামিম-সাকিবকে জ্বলে উঠতে হবে নিয়মিত। বল হাতে মাশরাফিদের দিনে কে আটকায়। সবার জন্য শুভকামনা। প্রত্যাশাটা আকাশ ছোঁয়া। হতাশ হতে চাই না। আইয়ূব বাচ্চু আমি ক্রিকেট খেলার ভক্ত। বাংলাদেশের খেলা হলে তো কথাই নেই। আমাদের দামাল ছেলেরা এখন অনেক ভালো খেলছে। অভিজ্ঞ–অনভিজ্ঞতার মিশেল রয়েছে আমাদের দলে। আমার মনে হয় প্রত্যেকেই তাদের নামের সাথে সুবিচার করে সর্বোচ্চটা দিতে পারলে আমরা এবারও অনেক ভালো করবো। শুভ কামনা থাকলো পুরো দলের প্রতি। তবে ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গে প্রাকটিস ম্যাচ দুটো হেরে কিছুটা মন ভেঙে দিয়েছিল। কিন্তু ভালবাসা এ দেশটার প্রতি এ দেশের ক্রিকেটের প্রতি এমনই যে হারি জিতি দল আমার দেশ আমার। ভালবাসা সব সময় সবখানে। হাবিব ওয়াহিদ আমি ক্রিকেট খেলা নিয়মিত দেখার চেষ্টা করি। কোন টুর্নামেন্ট এলে সেই দেখার আগ্রহটা স্বাভাবিকভাবেই বেড়ে যায়। এই যেমন বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে অংশগ্রহন করতে পারবে কি পারবে না তা নিয়ে একটা উত্তেজনা ছিল। হিসেব নিকেশ করতাম নিয়মিত। তখনও খেলার নিয়মিত খবর রাখতাম। বাংলাদেশ দলকে উৎসাহ দিয়ে গানও করেছি। এই যেমন ‘চলো বাংলাদেশ’। অনেক ভালো সাড়া পেয়েছি।  আসলে সেটাই হর কথা। বাংলাদেশ বিশ্বের যেখানে যে লড়াই লড়ুক আমরা সারা বাংলাদেশ তার পাশে আছি। তাদের এক গর্জন আমাদের কোটি গর্জন। অপূর্ব এক সময় ভাবতাম বাংলাদেশ শুধু সম্মানজনকভাবে হারবে। কিন্তু গত কয়েক বছরের কথা যদি বলি, বাংলাদেশ এখন শুধু জিতবে। জয়ের জন্যই মাঠে নামবে। আমি এবার চ্যাম্পিয়নস ট্রফির লড়াইয়ে বাংলাদেশকে ভালো একটি অবস্থানে দেখতে চাই এমনটা বলবো না। আমি চ্যাম্পিয়নস দল হিসেবে বাংলাদেশকে দেখতে চাই। আশা করছি আগের সব হিসাব-নিকাশ চুকিয়ে আমাদের দলটি সবাইকে নতুন চমক দেখাবে। বিদ্যা সিনহা মীম আমি তো জ্বড়ে পড়ে আছি। এবার চেষ্টা করবো বাংলাদেশ দলের সবগুলো ম্যাচ দেখার। যদিও সুস্থ হলে শুটিং ব্যস্ততা বেড়ে যাবে। তারপরও ক্রিকেটের সঙ্গেই থাকবো। অনলাইনে এখন তো খবর রাখা খুবই সহজ। বাংলাদেশ দল এখন অনেক পরিণত। তাই তাদের কাছে প্রত্যাশাও অধিক। আশা করি তার সবটা পূরণ করতে পারবে। বাংলাদেশ দল এখন এমন একটি ক্রিকেট দল যারা যে কোন প্রতিপক্ষকে হারাতে পারে। মাহিয়া মাহী আমি খেলার পোকা তা সবাই জানে। সুযোগ পেলে মাঠে গিয়ে বন্ধুদের নিয়ে খেলা দেখি। এবার রোজার মধ্যে শুটিং ব্যস্ততা কম রেখেছি। আর খেলাটাও শুরু হয়ে গেল। মজা করে খেলা দেখা যাবে। প্রিয় বাংলাদেশ দলকে শুভেচ্ছা। যেদিন দেশ ছাড়লো সেদিন থেকেই মনে হয়েছে ট্রফির আমেজ লেগে গেছে আমাদের সবার মাঝে। প্রতিবারই বাংলাদেশ প্রত্যাশা অনুযায়ী সাফল্য নিয়ে ঘরে ফিরতে পারে না। তবে এবার মনে হচ্ছে কিছু একটা হবে। ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই