চোখ ভালো রাখার উপায়

.ঢাকা, বুধবার   ২৪ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১০ ১৪২৬,   ১৮ শা'বান ১৪৪০

চোখ ভালো রাখার উপায়

ফাতিমাতুজ্জোহরা

 প্রকাশিত: ১৬:৫৪ ৯ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৬:৫৪ ৯ জানুয়ারি ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

চোখকে ভালো রাখতেই হবে। আমাদের জীবনে চলার জন্য চোখ একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। 

আমরা অনেক সময় চোখকে সুন্দর করে সাজাই, যেন চোখ দেখতে সুন্দর লাগে। সৌন্দর্য বৃদ্ধির একটা বিশেষ অঙ্গ হলো চোখ। এ চোখ কীভাবে ভালো রাখবেন ? সে সম্পর্কে জেনে নিন-

আমরা সবাই জানি, চোখে বেশি করে পানির ছিটা দিলে চোখ ভালো থাকে। এ ক্ষেত্রে দিনে পাঁচ থেকে ছয় বার পানির ছিটা দিতে হবে। খাদ্য তালিকায় প্রচুর পরিমাণে মাছ রাখতে হবে। মাছ চোখের জন্য খুবই ভালো। এছাড়াও ঘুম যেন ঠিক মতো হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। কারণ ঘুম না হলে মাথা ও চোখে অনেক ব্যথা হবে। ঘুম না হলে অনেক সময় মাথা ভার হয়ে থাকবে ও চোখে ব্যথা ব্যথা ভাব থাকবে। তাই ঠিক মতো ঘুমাতে হবে। মাঝে মাঝে আমাদের চোখ পিট পিট করে থাকে। এটা অনেকে দেখে হাসেন। কিন্তু এটা চোখের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো। 

চোখকে নিয়মিত পরিষ্কার করতে হবে। সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে চোখের ময়লা পরিষ্কার করে পানি দিয়ে ধুতে হবে। এছাড়াও দুই থেকে তিন সেকন্ড পর পর চোখ বন্ধ করতে হবে। আবার খুলতে হবে। এটা দিনের যেকোনো সময় করতে পারেন। তবে চোখ বিশ্রাম পাবে ও ভালো থাকবে। যখন খুব ক্লান্ত লাগবে ও আর অনেক সময় ধরে চোখের ওপর প্রেশার পড়বে তখন চোখকে কিছু সময়ের জন্য আরাম দেয়ার চেষ্টা করতে হবে। এ জন্য হাতের তালু ঘষে হালকা গরম করে নিতে হবে। তারপর কিছু সময় চোখের ওপর চাপা দিতে হবে। এভাবে কিছু সময় রাখতে হবে। তবে চোখে অনেক আরাম পাবেন। আর এটা চোখকে অনেক ভালো রাখবে।
 
আমরা সাধারণত কাছের জিনিস সব সময় দেখে থাকি। দূরের জিনিস লক্ষ্যই করা হয় না। কিন্তু চোখ ভালো রাখার জন্য দূরের জিনিস দেখার অভ্যাস করতে হবে। দূরের জিনিস দেখার চেষ্টা করলে চোখের ভিশন কখনই একটা জায়গায় আঁটকে যাবে না। অনেক দিন ধরে কম্পিউটার ব্যবহার করলে কম্পিউটারের দূরত্বে ভিশন আঁটকে যায়। তাই আর দূরের জিনিস দেখতে পাওয়া যায় না। কম্পিউটার ব্যবহারের পর দূরের জিনিসগুলো বার বার দেখার চেষ্টা করতে হবে। তবে আপনার দৃষ্টি কখনোই একটা জায়গায় আঁটকে যাবে না।
 
সূর্যের আলো চোখের জন্য খুবই ভালো ওষুধ। তবে সেটা অতিরিক্ত তাপ নয় অথবা ১২ বা ১টার সময়ের সূর্যের রোদ নয়। সকাল বেলা সূর্যের হালকা আলোতে তাকিয়ে থাকলে সেটা চোখের জন্য খুবই ভালো। অনেক সময় কাজ করলে চোখে একটা ঝাপসাভাব আসে। চোখ শুকিয়ে গেলে এটা হয়। তাখন চোখে পানির ঝাপটা দিলে চোখ ভালো থাকে। আদ্রতা বিহীন বাতাস থেকে চোখ দূরে রাখার চেষ্টা করতে হবে। কারণ শুষ্ক বাতাস চোখের জন্য খুবই ক্ষতিকারক। অনেকেরই চোখ শুকিয়ে যায় ও চোখের নার্ভ শুকিয়ে যায়। এয়ার কন্ডিশনের বাতাস আমাদের চোখের জন্য খুবই ক্ষতিকর। প্রয়োজনের সময় এসি চালাতে পারেন অল্প সময়ের জন্য। কিন্তু ২৪ ঘণ্টা চালিয়ে রাখলে তা শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকারক। কারণ এসির বাতাস অনেক শুষ্ক। বাইরে বের হলে সান গ্লাস ব্যবহার করতে পারেন। যাতে চোখ ধূলোবালি থেকে মুক্ত থাকে।

অনেকে ধূমপান বা মদ্যপান করে থাকেন। এ জন্য চোখের অনেক ক্ষতি হয়। এমনকি ধূমপানের কারণে চোখ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। মহিলারা কোথাও বের হলে চোখে বিভিন্ন রকম আইলাইনার বা আইশ্যাডো ব্যবহার করে থাকেন। এগুলো ব্যবহার করার পর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তুলে ফেলার চেষ্টা করতে হবে। তবে চোখ ভালো থাকবে। 

খাদ্য তালিকায় মাছের পাশাপাশি পালং শাক অবশ্যই রাখতে হবে। অনেক সময় কাজের পর চোখ বন্ধ করে একটু ম্যাসাজ করতে হবে। আর ম্যাসাজ শুধু চোখে নয় মাথায়ও করতে পারেন। তবে সেটাও চোখের জন্য খুবই ভালো। এসব নিয়ম মেনে চলেও যদি চোখের সমস্যা অনুভব করেন তবে অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে।

ডেইলি বাংলাদেশে/আরএজে