Alexa চোখের নিচে ও ঠোঁটের কালো দাগ দূর করতে একমাত্র ভরসা কফি!

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ১ ১৪২৬,   ১৭ সফর ১৪৪১

Akash

চোখের নিচে ও ঠোঁটের কালো দাগ দূর করতে একমাত্র ভরসা কফি!

কানিছ সুলতানা কেয়া ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০৩ ১০ অক্টোবর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আজকাল পানীয় হিসেবে কফি বেশ জনপ্রিয়। ব্যস্ত কর্মদিনে এক মগ কফি আমাদের মুহূর্তেই চাঙ্গা করে তোলে। তবে জানেন কি? আপনার মগের শেষ কফিটুকু দিয়েই প্রতিদিনের ত্বকের যত্ন নিতে পারেন। তাহলে জেনে নিন কীভাবে-

মুখের স্ক্রাব হিসেবে কফির ব্যবহার

এক টেবিল চামচ কফি, এক চা চামচ চিনি, এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল বা নারকেল তেল নিয়ে নিন। সবগুলো উপাদান একত্রে মেশান এবং ভেজা ত্বকে লাগান। ত্বকের তৈলাক্ত অংশগুলোতে আস্তে আস্তে ঘড়ির কাটার উল্টোদিকে ম্যাসাজ করতে থাকুন। বিশেষ করে থুতনি, নাক এবং কপালে। কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করার পর হালকা পানির ঝাপটায় ধুয়ে ফেলুন। তারপর নরম তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন। এই অসাধারণ স্ক্রাবটি আপনার মুখের মরা কোষ ঝরিয়ে মুখের ত্বকের সবচেয়ে নরম এবং উজ্বল অংশটি বের করে আনতে সহায়তা করবে। 

মুখে কফির ব্যবহারমুখের মাস্ক হিসেবে কফি

কফি দিয়ে তৈরি করা যায় অসাধারণ মুখের মাস্ক। এটি তৈরি করতে এক চামচ কফি আর এক চামচ মধু মিশিয়ে নিন। ভালো করে মেশান যাতে এটা পেস্টের মতো হয়ে যায়। এবার এই মিশ্রণটি আপনার মুখে এবং গলায় ভালো করে লাগিয়ে নিন। এমনভাবে লাগান যাতে চোখ এবং চোখের আশেপাশের অংশ ছাড়া সম্পূর্ণ মুখ এবং গলা ঢেকে যায়। ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে টান লাগলে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এর ব্যবহারে আপনার মুখের ব্রণের দাগ এবং ব্রণ ওঠা কমে যাবে। ত্বক হয়ে ওঠবে উজ্জ্বল এবং গোলাপী।  

চুলের মাস্ক হিসেবে কফি

যারা চুলের রং গাঢ় করতে চান এবং চুলে বাড়তি গ্লো নিয়ে আসতে চান, তারা কফির তৈরি চুলের মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। আপনার চুলের প্রয়োজন অনুযায়ী কন্ডিশনারের সঙ্গে এক অথবা দুই চামচ কফি মেশান। এটি আপনার  চুলের গোড়া ও মাথার ত্বক বাদে পুরো চুলে আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত লাগিয়ে নিন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে দিন। তারপর প্রচুর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তবে আপনি যদি আপনার চুলের রং হালকা রাখতে চান, তাহলে মোটেও এই মাস্ক ব্যবহার করবেন না। কারণ এটা প্রাকৃতিকভাবেই চুলের রং বদলে দেয়। কফি রঙের সঙ্গে সঙ্গে আপনার চুলে আলাদা উজ্জ্বলতা ও চিকচিকে ভাব চলে আসবে। 

বডি স্ক্রাবারবডি স্ক্রাবার হিসেবে কফির ব্যবহার 

কফির তৈরি বডি স্ক্রাব বানাতে এক টেবিল চামচ কফির গুঁড়ার সঙ্গে এক টেবিল চামচ চিনি আর নারকেল তেল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি গোসলের আগে ভেজা ত্বকে লাগান। ধীরে ধীরে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে আপনার ত্বকের উপর স্ক্রাব করুন। বিশেষ করে হাতের কনুই, হাঁটু এবং কাঁধে মনোযোগ দিন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন এবং শুকনা তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন। বাড়তি লোশনের প্রয়োজন নেই। কারণ নারকেল তেলই আপনার ত্বককে আর্দ্র করে তুলবে। নরম ও পরিচ্ছন্ন ত্বকের জন্য সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার ব্যবহার করতে পারেন।  এই স্ক্রাবার ব্যবহারে ফলাফল পাবেন দামী স্ক্রাবের মতই।

ডার্ক সার্কেল দূর করতে কফির ব্যবহার

ডার্ক সার্কেল দূর করতে কফির ব্যবহার অসাধারণ। এক চামচ কফি গুঁড়ার সঙ্গে এক চামচ এলোভেরা জেল মিশিয়ে চোখের নিচের ভারী করে লাগিয়ে নিন। চোখ বন্ধ করে চুপচাপ বিশ মিনিট শুয়ে থাকুন এবং আরাম করুন। কিছুক্ষণ পর আলতো হাতে ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফলাফল পেতে সপ্তাহে অন্তত তিনবার ব্যবহার করুন। এটা চোখের চারপাশের ফোলাভাব কমায়। রক্ত চলাচল বাড়িয়ে আপনার চোখের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করবে।  

ঠোঁটের স্ক্রাব হিসেবে কফির ব্যবহার

গোলাপি ও নরম ঠোঁটের জন্য ব্যবহার করতে পারেন কফির স্ক্রাব। এটি আপনার ঠোঁট থেকে মরা কোষ দূর করে নরম ত্বক বের করে আনবে। অতিরিক্ত আর্দ্রতা প্রতিরোধ করবে। এর জন্য এক চামচ কফির গুঁড়া, এক চামচ মধু মিশিয়ে ঠোঁট ভিজিয়ে তাতে লাগান। ধীরে ধীরে আঙ্গুল দিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ম্যাসাজ করুন। তিন মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। হালকাভাবে মুছে নিয়ে ঘরে তৈরি/ভালো মানের কোনো লিপবাম ব্যবহার করুন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস