চুয়েটে অনলাইনভিত্তিক কেস সলভিং প্রতিযোগিতা  শুরু

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩০ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

চুয়েটে অনলাইনভিত্তিক কেস সলভিং প্রতিযোগিতা  শুরু

চুয়েট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪৫ ২ জুন ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

সমসাময়িক সমস্যার বাস্তব ও টেকসই সমাধান বের করার লক্ষ্যে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) শুরু হলো অনলাইন ভিত্তিক কেস সলভিং প্রতিযোগিতা। 

'ফেইস দ্যা কেইস কম্পিটিশন-২০২০' শীর্ষক  অনলাইনভিত্তিক প্রতিযোগিতাটির প্রযোজনায় থাকছে আইইইই স্টুডেন্ট ব্রাঞ্চ চুয়েট।

মেধা, সৃজনশীলতা আর বাস্তবতার ভিত্তিতে দেয়া সমাধানকেই প্রাধান্য দেয়া হবে প্রতিযোগীতাটিতে। দুটি ধাপে সম্পন্ন হচ্ছে এটি যার প্রথমটি হলো- সিলেকশন রাউন্ড (২রা জুন - ৫ই জুন)। সিলেকশন রাউন্ডের অংশ হিসেবে নির্দিষ্ট কেইস প্রতিযোগিদের মেইলে প্রেরণ করা হয়েছে যা সমাধান করে নির্ধারিত সময়ে সাবমিট করবেন প্রতিযোগীরা। প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় অংশটি হলো ফাইনাল রাউন্ড( ৭ই জুন - ১২ই জুন)। ফাইনাল রাউন্ডে অনলাইন প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তিন টি টিম বিজয়ী ঘোষণা করা হবে যাদের জন্য রয়েছে আকর্ষণীয় পুরষ্কার।

প্রতিযোগিতাটি শুধু ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার্থীদের জন্যই নয়, বরং যে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বাস্তব সমস্যার সমাধানের লক্ষ্যে এতে অংশগ্রহণ করতে পারছে। এরইমধ্যে বুয়েট, চুয়েট, কুয়েট, রুয়েট, ঢাবি, চবি, আইইউটি, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, শাবিপ্রবি, বুটেক্স,  ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়, হাবিপ্রবি, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজসহ ৩৯ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সর্বমোট ১৪৭ টি টিম রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছে। প্রতিটি টিম এ ১-৩ জন মেম্বার সহ মোট অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ৩২৮ জন।

প্রতিযোগিতায় পর্যবেক্ষক হিসেবে আছেন চুয়েটের কম্পিউটার বিজ্ঞান প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মশিউল হক। এছাড়া চুয়েটের অন্যান্য শিক্ষকগণের মধ্যে ইইই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. নূর মোহাম্মদ, সিএসই বিভাগের লামিয়া আলম, ইইই বিভাগের নকিব সাদ পাঠান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিযোগিতাটি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে বিচারক হিসেবে চুয়েটের সাবেক শিক্ষার্থী ও গবেষকগণ ছিলেন।

আইইইই স্টুডেন্ট ব্রাঞ্চ চুয়েট এর  ব্রাঞ্চ চেয়ার অভিষেক দাস অয়ন জানান, ‘এই প্রতিযোগিতা কোয়ারেন্টাইনের সময়ে সকলকে প্রোডাক্টিভ কাজের সঙ্গে নিজেকে জড়িত রাখতে উৎসাহিত করবে। একইসঙ্গে নিজেকে মানবসেবায় নিয়োজিত করতেও সাহায্য করবে।’

 উক্ত প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রেশনের অর্থ করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যে ব্যয় করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআর