.ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৮ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৫ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪০

চুল পড়ার কারণ

 প্রকাশিত: ১৯:৪৩ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ২০:০২ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

কম বেশি চুল পড়া নিয়ে সবাই দুশ্চিন্তায় থাকেন। নারী পুরুষ নির্বিষে সৌন্দর্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সুন্দর ঝলমলে চুল হেয়ার ট্রিটমেন্ট, হেয়ার প্যাক কত কিছুর মাধ্যমে আমাদের চেষ্টা থাকে চুল পরিচর্যার। অথচ ছোট ছোট ভুলের কারণে অজান্তে চুলের ক্ষতি হয়ে যায়। চলুন জেনে নেয়া যাক নিজেদের ভুলগুলো যার জন্য চুল পড়ে যাচ্ছে। চুল ঝরে পরার জন্য দায়ী বদ অভ্যাস-

১. শ্যাম্পু করার আগে চুল আঁচড়ে নেয়া উচিত। এতে চুলের জট খুলে যায় এবং সহজেই শ্যাম্পু করা যায়। চুল না আঁচড়ানোর কারণে  সারাদিনের ধুলো বালি জমে  চুলে জট লেগে থাকে, যা শ্যাম্পু করার সময় আরো বেড়ে যায়।

২. নিয়মিত করা ভূলগুলোর মধ্যে ভেজা চুল আঁচড়ানো অন্যতম। অনেকেই গোসলের পর ভেজা চুল আঁচড়িয়ে থাকেন। ভেজা অবস্থায় চুল নরম থাকে তাই চুল আঁচড়ালে চুল খুব সহজে চিরুনিতে উঠে আসে। ভেজা অবস্থায় চুলে কখনও স্প্রে ব্যবহার করবেন না।

৩. অনেকেই শুধু চুলের আগা আঁচড়িয়ে থাকেন। চুলের গোঁড়া আচড়াতে চান না। কিন্তু চুলের আগার সাথে গোড়া আচড়ানোও বেশ জরুরী। চুলের গোড়া আচড়ালে রক্তচলাচল বৃদ্ধি পায়।

৪. অনেকেই মনে করেন প্রতিদিন চুল শ্যাম্পু করা উচিত। তবে প্রতিদিন শ্যাম্পু করলে চুলের গোড়ার প্রাকৃতিক তেল ধুঁয়ে যায় আর এই কারণে আপনার চুল রুক্ষ হয়ে যায়। আর শ্যাম্পুর কেমিক্যাল চুলকে ভঙ্গুর করে ফেলে।

৫. চুলের সব ময়লা, ধুলা-বালি চিরুনিতে লেগে যায়। প্রতি সপ্তাহে চিরুনি পরিষ্কার করুন। চিরুনি পরিষ্কার করার জন্য ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন। ভিনেগারে চিরুনি ভিজিয়ে রাখুন। তারপর একট স্পঞ্জ দিয়ে চিরুনি পরিষ্কার করুন।

৬. অনেকেই গোসলের পর গামছা বা তোয়ালে দিয়ে চুল পেঁচিয়ে রাখেন। এটি চুলের জন্য ক্ষতিকর। এ কারণে চুলের গোঁড়া দূর্বল হয়ে যায়। যার কারণে চুল ঝরে পড়ে।

৭. দুই মাস পর পর শ্যাম্পু পরিবর্তন করা উচিৎ।

৮. চুলকে সাজাতে অনেকেই হেয়ার ড্রায়ার ও স্ট্রেইটনার ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু এগুলো ব্যবহার চুলের জন্য অনেক ক্ষতিকর। এগুলোর অতিরিক্ত তাপমাত্রা খুব সহজেই চুলকে নিষ্প্রাণ করে ফেলে। নিয়মিত ব্যবহারে চুল ভঙ্গুর হয়ে যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস/এসজেড