Alexa চীনে করোনাভাইরাস বিস্তাররোধে বন্যপ্রাণীর ব্যবসা নিষিদ্ধ

ঢাকা, বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৭ ১৪২৬,   ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

চীনে করোনাভাইরাস বিস্তাররোধে বন্যপ্রাণীর ব্যবসা নিষিদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৪৮ ২৬ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৬:৫১ ২৬ জানুয়ারি ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

এবার করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে সব ধরনের বন্যপ্রাণীর ব্যবসা নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে চীন। রোববার দেশটির বাজার পর্যবেক্ষণ সংস্থা, কৃষি মন্ত্রণালয় ও বনায়ন ব্যুরো এক যৌথ বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেয়।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হু হু করে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। দ্রুত গতিতে ব্যাপক বিস্তার লাভ করেছে এ ভাইরাসটি। এ কারণে দেশটির মার্কেট, সুপারমার্কেট, রেস্তোরাঁ, ই-কমার্স সাইটে সব ধরনের বন্যপ্রাণীর ব্যবসা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, উহান শহরের সি-ফুড ও মাছ-মাংসের বাজার থেকে এ ভাইরাসটি ছড়িয়েছে। এই বাজারে বিভিন্ন ধরনের বন্যপ্রাণীর মাংস বেআইনিভাবে বিক্রি হতো। একটি সূত্রের দাবি, হুবেই প্রদেশের বাসিন্দাদের অনেকেই যেহেতু চীনা কালাচ এবং চীনা গোখরার মাংস খান, সেখান থেকেও এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে থাকতে পারে। এ কারণে বন্যপ্রাণীর জন্মভূমি ও উৎপাদন অঞ্চলগুলো পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। এছাড়া সব ধরনের বন্যপ্রাণী পরিবহনও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত প্রায় ৫৬ জন মারা গেছে। আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজারের বেশি মানুষ। যার মধ্যে উহানের রাজধানী হুবেই শহরে সবচেয়ে বেশি ছড়িয়েছে এ সংক্রমণ। তবে উহান শহরের হাসপাতালে কর্মরত এক নার্স দাবি করেছেন, উহান শহর ও পুরো চীনজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৯০ হাজার। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) প্রধান তেদরোস আধানোম ঘেবরেইয়েসুস অবশ্য বলেছেন, চীনের অবস্থা নিশ্চিত ভাবেই খারাপ। তবে পরিস্থিতি এখনো বিশ্ব স্বাস্থ্যের পক্ষে ‘জরুরি অবস্থা’ হয়ে ওঠেনি।

বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা করছেন, যে গতিতে ভাইরাস ছড়াচ্ছে, এটিকে প্রতিরোধ করা না গেলে সাড়ে ৬ কোটি মানুষের প্রাণহানি হতে পারে।

সূত্র: রয়টার্স

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ