চিত্রনায়ক আব্দুস সাত্তার মারা গেছেন
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=197905 LIMIT 1

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৭ ১৪২৭,   ০৪ সফর ১৪৪২

চিত্রনায়ক আব্দুস সাত্তার মারা গেছেন

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৫২ ৪ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১১:০৪ ৫ আগস্ট ২০২০

চিত্রনায়ক আব্দুস সাত্তার

চিত্রনায়ক আব্দুস সাত্তার

আশির দশকের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আব্দুস সাত্তার মারা গেছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় ইন্তেকাল করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭২ বছর।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আব্দুস সাত্তার ভাই একসময়ে জনপ্রিয় নায়ক ছিলেন। বহু সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকায় তার চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু আজ তিনি মারা গেলেন।  আমি তার আত্মার শান্তি কামনা করছি এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

প্রয়াত সাত্তারের স্ত্রী কাকলী সাত্তার বলেন, সন্ধ্যায় রাজধানীর গ্রীনলাইফ মেডিকেল কলেজের আইসিইউতে নেয়ার সময় তার (সাত্তার) মৃত্যু হয়।

২০১২, ২০১৫ ও ২০১৮ সালে তিনবার ব্রেনস্টোক করেন চিত্রনায়ক সাত্তার। তারপর থেকে তিনি প্যারালাইজড হয়ে যান। গত দুই বছর ধরে সাত্তার বিছানায় পড়েছিলেন।

কাকলী সাত্তার জানান, ছয় বছর আগে প্রধানমন্ত্রী তাকে ৩০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছিলেন। সেই টাকায় চিকিৎসা ও সংসার চলতো সাত্তারের। শেষ ইচ্ছে অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ এলাকায় পারিবারিক গোরস্থানে নায়ক সাত্তারকে দাফন করা হবে।

শাবানা থেকে শুরু করে রোজিনা, অঞ্জু, জিনাত, কবিতা, অলিভিয়া, রানীসহ অনেক সুপার হিট নায়িকার নায়ক ছিলেন সাত্তার। সর্বশেষ ২০১২ সালে পিএ কাজলের ‘চাচ্চু আমার চাচ্চু’ ছবিতে দেখা গিয়েছিল সাত্তারকে।

চলচ্চিত্রে সাত্তারের প্রথম উপস্থিতি ১৯৬৮ সালে। ইবনে মিজানের ‘আমির সওদাগর ও ভেলুয়া সুন্দরী’ ছবিতে শিশুশিল্পীর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তার নায়ক হয়ে ওঠার ঘটনা আরো পরে। ১৯৮৪ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতা থেকে বেরিয়ে কাজ করেন কাজী হায়াৎ এর ‘পাগলী’ ছবিতে। 

আজিজুর রহমানের ‘রঙ্গিন রূপবান’, ‘অরুন বরুণ কিরণ মালা’, ‘কাঞ্চন মালা’, ইবনে মিজানের ‘পাতাল বিজয়’, চাষী নজরুল ইসলামের ‘শুভদা’, মিলন চৌধুরীর ‘রঙ্গিন সাত ভাই চম্পা’সহ সাত্তার অভিনীত চলচ্চিত্র সংখ্যা প্রায় দেড় শতাধিক।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ/টিএএস