Alexa চিকিৎসা বঞ্চিত অর্ধলক্ষাধিক মানুষ

ঢাকা, রোববার   ১৮ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৩ ১৪২৬,   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

চিকিৎসা বঞ্চিত অর্ধলক্ষাধিক মানুষ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৪:১৮ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৪:৩৮ ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সুনামগঞ্জ মধ্যনগরের বংশীকুণ্ডা দক্ষিণ ইউপির স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র বন্ধ থাকায় অর্ধলক্ষাধিক মানুষ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত।

দায়িত্বহীনতার কারণে হাওরবাসীদের চিকিৎসা সেবার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি বন্ধ। স্থানীয়রা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি চালু করার দাবি জানালেও সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ শুনতেই চাইছে না। ফলে গ্রামের গর্ভবতী নারী, শিশু ও বয়স্করা বেশি ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। আর বাড়ছে হাতুড়ে ডাক্তার ও কবিরাজদের ব্যবসা।

১৯৮৪সালে বংশীকুণ্ডায় নির্মিত হয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি। কয়েক বছর পর কেন্দ্রটি বন্ধ হয়ে পড়ে। যার ফলে সর্ব সাধারণ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হয়।

বংশীকুণ্ডা গ্রামের বাসিন্দা মো. ইসলাম উদ্দিন জানান, এ অঞ্চলের মানুষ স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত। এলাকা থেকে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দূরত্ব ৩০কিমি.। বংশীকুণ্ডার মতো দূর্গম এলাকা থেকে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য সেবা নেয়া যেমন কষ্টের তেমন ব্যয়বহুল।

বংশীকুণ্ডা দক্ষিণ ইউপি ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তা অমিত হাসান রাজু জানান, দীর্ঘদিন ধরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি পরিত্যক্ত অবস্থায় আছে। এলাকায় বিশাল জনগোষ্ঠীর হাসপাতাল না থাকায় নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করেন। দূর্গম অঞ্চলে সরকারের স্বাস্থ্য সেবার জন্য বিশেষ বরাদ্দ দেয়া প্রয়োজন। কর্তৃপক্ষ যদি বংশীকুণ্ডা দক্ষিণ ইউপি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি সংস্কার করে আবার চালু করে তাহলে এই হাওর অধ্যুষিত জনগোষ্ঠীর প্রাথমিক চিকিৎসা সেবার কষ্ট লাঘব হবে।

সুনামগঞ্জ জেলা পরিবার পরিকল্পনা উপ-পরিচালক মোজাম্মেল হক জানান, স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য পুনরায় বংশীকুণ্ডা দক্ষিণ ইউপি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি চালু করার ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসকে

Best Electronics
Best Electronics