Alexa চা-বিক্রির টাকায় স্কুল চালিয়ে পাচ্ছেন রাষ্ট্রীয় সম্মাননা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ১৬ ১৪২৬,   ০৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

চা-বিক্রির টাকায় স্কুল চালিয়ে পাচ্ছেন রাষ্ট্রীয় সম্মাননা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: international-desk

 প্রকাশিত: ১৪:২৬ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৪:২৬ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

চলতি বছর ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা পদ্মশ্রী পাচ্ছেন দেশটির ৯৪ নাগরিক। শিল্পকলা, শিক্ষা, বাণিজ্য, সাহিত্য, বিজ্ঞান, খেলাধুলা, সমাজসেবা ও সরকারি ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ভারত সরকার এই সম্মান প্রদান করেন। এবারের এই সম্মাননা তালিকায় নাম রয়েছে ডি প্রকাশ রাও নামে ওড়িশার কটকের এক বাসিন্দার।

চা-বিক্রি করে যা উপার্জন করেন, তার একটা বড় অংশ তিনি খরচ করেন সমাজসেবার মাধ্যমে। তিনি আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া শিশুদের লেখাপড়ার ব্যবস্থা করেন। নিজের আয়ের একটি অংশ খরচ করে তিনি কটক ও তার আশপাশের এলাকায় একটি স্কুলও খুলেছেন। প্রত্যেকদিন তিনি ওই স্কুলে যান। তিনি গত ৬৭ বছর ধরে এই কাজ করে আসছেন, তার জন্যই তাকে এই সম্মাননা দেয়া হবে।

বিনামূল্যে শিশুদের তিনি পড়ানোর কাজ করেন। সেই কাজ সেরে তিনি চলে যান হাসপাতালে। সেখানে রোগীর সেবা, রোগীর পরিজনদের সহায়তা, রোগীদের জন্য গরম পানির ব্যবস্থাও করে দিন ডি প্রকাশ রাও।

মাঝেমধ্যে তিনি রক্তদানও করেন। চা-বিক্রেতা প্রকাশ রাও কখনও স্কুলে যাননি। অথচ তিনি হিন্দি ও ইংরেজি বেশ ভালো বলতে পারেন। 

ডি প্রকাশ রাওয়ের প্রশংসা করেছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। ২০১৮ সালের ৩০ মে মন কি বাত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ওই চা বিক্রেতার অবদানের কথা উল্লেখ করেছিলেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ