চার জেলায় দুর্ঘটনায় নিহত ১৮

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৬,   ১৯ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

চার জেলায় দুর্ঘটনায় নিহত ১৮

জেলা সংবাদদাতা ডেইলি-বাংলাদেশ

 প্রকাশিত: ২১:১৬ ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ১৫:০৬ ৫ মার্চ ২০১৯

মৌলভীবাজার, সিলেট, টাঙ্গাইল ও নরসিংদীতে পৃথক দুর্ঘটনায় ১৮ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ২৬ জন।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা সদরের শ্রীমঙ্গল-মৌলভীবাজার সড়কে পিকআপভ্যান চাপায় এনজিও সংস্থা আরডিআরএস কর্মী মুফাজ্জিল আলম (২৭) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পিকআপ ভ্যান ও এর চালককে আটক করেছে পুলিশ।

সকাল পৌনে ৯টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মুফাজ্জিল মৌলভীবাজার সদরের নারায়ণপাশা গ্রামের শাহ মনা মিয়ার ছেলে।

শ্রীমঙ্গল থানার ডিউটি অফিসার সহকারী পরিদর্শক (এসআই) নাজমা বেগম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সিলেট: সিলেটে যাত্রীবাহী বাস উল্টে এক শিশু নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আরও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

দুপুর আড়াইটার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের খাদিমপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশুর বয়স অনুমানিক সাত বছর বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। আহতদের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের শাহ পরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের মহেড়া জমিদার বাড়ি (পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার) বিনোদন কেন্দ্রে বেড়াতে গিয়ে বাসচাপায় মা ও ছেলে-মেয়ে নিহত হয়েছেন।

দুপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের মহেড়া পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার স্টেশন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- দেলদুয়ার উপজেলার নাল্লাপাড়া গ্রামের তারা মিয়ার স্ত্রী ফাহিমা বেগম (৩৫), মেয়ে তারিনা আক্তার (১৪) ও ছেলে তানভীর হোসেন (১০)।

মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মোতালেব হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নরসিংদী: নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার গোকর্ণ নগর গ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ছয় শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এসময় আহত হয়েছেন আরো একজন।

বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, বিকেলে একটি ভবনের বৈদ্যুতিক কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন ছয় শ্রমিক। এ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক পাঁচজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে, নরসিংদীর পলাশ উপজেলার কান্দাইল এলাকায় বাস-কাভার্ড ভ্যান সংঘর্ষে সাতজন নিহত হন। এতে আহত হয়েছেন ১৫ জন।

ভোর সাড়ে ৫টায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- নরসিংদীর আমদিয়ার হাটখোলা এলাকার আলি আকবরের স্ত্রী হেনা বেগম (৩০), কান্দাপাড়ার আব্দুর রহমান (৫০) ও তার ছেলে রবিউল (২০), কান্দাইলের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে সুমি বেগম (১৫), আব্দুল বাছির উদ্দিন (৪৫) ও নাছিমা বেগম (৩৩)। এছাড়া অজ্ঞাতপরিচয় আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয়রা দাবি করেছেন।

মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইলিয়াস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ

Best Electronics