Alexa চাটমোহরে ইভটিজিং নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ১০

ঢাকা, বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৩ ১৪২৬,   ১৮ মুহররম ১৪৪১

Akash

চাটমোহরে ইভটিজিং নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ১০

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:০১ ২১ আগস্ট ২০১৯   আপডেট: ২১:৩৫ ২১ আগস্ট ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

পাবনার চাটমোহরে ইভটিজিং নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে উপজেলা গুনাইগাছা ইউপির বড় শালিকা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- বড়শালিকা গ্রামের জব্বার প্রামানিকের ছেলে সাদ্দাম হোসেন, কেয়াম উদ্দিনের ছেলে আবদুল মান্নান তার ছেলে মানিক হোসেন, অনিক হোসেন, ইরাদ হোসেন তার স্ত্রী আশা খাতুন, কেয়ামত উদ্দিনের স্ত্রী হাজেরা খাতুন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।  

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে চাটমোহর থানার ওসি সেখ নাসীর উদ্দিন জানান, সোমবার বিকেলে বড় শালিকা গ্রামের এক স্কুলছাত্রীকে প্রতিবেশী রজব আলীর ছেলে সাজেদুল এক কিশোরের মাধ্যমে ডেকে পাঠায়। পরে ওই স্কুলছাত্রী সেখানে গেলে সাজেদুর ও মান্নানের ছেলে অনিক হোসেন ছাত্রীর ছবি তুলে। এ সময় তার হাত ধরে পাশের একটি ঘরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তারা। পরে ওই স্কুলছাত্রী সেখান থেকে পালিয়ে গিয়ে বিষয়টি পরিবারকে জানালে সেদিন রাতেই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয় ভুক্তভোগীর বাবা।

তিনি আরো জানান, মঙ্গলবার রাতে ইভটিজিংয়ের বিষয় নিয়ে দু’পক্ষের কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে স্কুলছাত্রীর স্বজনরা অভিযুক্তদের রড, বাঁশ দিয়ে মারধর করে। এরপর উভয়পক্ষের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হন। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ওসি বলেন, এ ঘটনায় উভয়পক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তবে বিষয়টি মীমাংসার জন্য মেয়র সময় নিয়েছেন। মীমাংসা না হলে থানায় মামলা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ