চরফ্যাশনের ধর্মগুরু মজিদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

ভোলা প্রতিনিধিডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ভোলার চরফ্যাশনে তথাকথিত কালেমার জামাতের আমির প্রফেসর আবদুল মজিদের ধর্ম বিরোধী কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে স্থানীয় মুসল্লিরা।

শুক্রবার জুমাবাদ উপজেলার আবুবকরপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন মসজিদ থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে আবুবকরপুর মাদরাসা বাজার জামে মসজিদের সামনে স্থানীয় মুসল্লিরা জড়ো হয়।

এসময় বিক্ষোভকারীরা ভণ্ড প্রফেসর আবদুল মজিদের ফাঁসিসহ অনতি বিলম্বে তার আস্তানা বন্ধ, তার অপকর্মে সহযোগীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। পরে মিছিলটি শিবারহাট বাজারে মানববন্ধন করেন।

প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক সৈয়দ ওয়ালিউল্লাহ রচিত উপন্যাসের ‘লালসালু’র ভণ্ড পীর মজিদের নামে তার নাম। যদিও তিনি একজন সাবেক বেসরকারি কলেজ শিক্ষক। কিন্তু এলাকাতে এবং তার মুরিদদের কাছে মজিদ প্রফেসর বা প্রফেসর আবদুল মজিদ নামে পরিচিত। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী প্রফেসর না হলেও প্রফেসর হিসেবে পরিচিত তিনি। 

এক সময় তাবলীগ জামাতের সঙ্গে জড়িত থাকলেও দীর্ঘ কয়েক বছর পূর্বে ১৯৯৭ সালে গঠন করেন কালেমার জামাত নামে একটি সংগঠন। যে সংগঠনের আমির বা কমান্ডার হলেন তিনি।

আলেম ওলামাদের সাথে সম্পৃক্ত না থেকেও মনগড়া ও বির্তকিত ফতোয়া দেন তিনি। তার সংগঠনের সদস্যদের দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছদ্ধবেশে পাঠিয়ে তার কালেমার জমাতের প্রচার এবং সদস্য সংগ্রহের কাজ করে থাকে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সদস্য সংগ্রহ করে প্রাচীন, আদিম, অমানবিক এবং উগ্র, ও ভ্রান্ত পন্থায় প্রশিক্ষিত কর।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআর