রোহিঙ্গা
শিরোনাম:
ডাকসু নির্বাচনের দাবিতে ভিসি’র অফিসের সামনে বিক্ষোভ-সমাবেশ করছে ঢাবি ছাত্রফ্রন্ট ও ছাত্র ফেডারেশন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন এবং বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্যরা লিংকরোড অবরোধ করেছে ব্লগার নিলয় হত্যার প্রতিবেদন দাখিল ১৫ নভেম্বর ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে জার্মানি, দ্বিতীয় ব্রাজিল, বাংলাদেশের অবস্থান ১৯৬তম ১৯ নভেম্বর মিয়ানমার যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্ব ইজতেমা শুরু ১২ জানুয়ারি
শিরোনাম:
ডাকসু নির্বাচনের দাবিতে ভিসি’র অফিসের সামনে বিক্ষোভ-সমাবেশ করছে ঢাবি ছাত্রফ্রন্ট ও ছাত্র ফেডারেশন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন এবং বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্যরা লিংকরোড অবরোধ করেছে ব্লগার নিলয় হত্যার প্রতিবেদন দাখিল ১৫ নভেম্বর ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে জার্মানি, দ্বিতীয় ব্রাজিল, বাংলাদেশের অবস্থান ১৯৬তম ১৯ নভেম্বর মিয়ানমার যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্ব ইজতেমা শুরু ১২ জানুয়ারি...

চবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫

প্রকাশিত: ০৯:৪৯, ১২ অক্টোবর ২০১৭

আপডেট: ১৬:৫৮, ১২ অক্টোবর ২০১৭

২৮ বার পঠিত

টিভিতে খেলা দেখাকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে এ ঘটনায় পাঁচজন আহত হয়েছে।

আহতরা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের স্থগিত করা কমিটির সাধারণ সম্পাদক এইচ এম ফজলে রাব্বি সুজনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

আহতদের মধ্যে বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী রুপক, ইসলামের ইতিহাস বিভাগের আহাদ, সংস্কৃত বিভাগের প্রান্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএফসি গ্রুপের কর্মী। অন্যদিকে সংস্কৃত বিভাগের নয়ন চন্দ্র মোদক ও আরবি বিভাগের ইমরান বিজয় গ্রুপের কর্মী বলে জানা যায়। তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল সেন্টারে প্রাথমিক চিকিত্সা দেওয়া হয়।

জানা যায়, গতকাল ভোরে একই সময়ে পৃথক ম্যাচে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের খেলা চলছিল। ওই সময় বিজয় গ্রুপের কয়েকজন কর্মীর সঙ্গে সিএফসি গ্রুপের কয়েকজনের টিভির রিমোটের কর্তৃত্ব নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে দুপুর আড়াইটার দিকে সিএফসি গ্রুপের রুপক ও আহাদ সোহরাওয়ার্দী হলের ক্যাফেটেরিয়ায় দুপুরে খাবার খাওয়ার জন্য গেলে বিজয় গ্রুপের কয়েকজন কর্মী তাদের মারধর করে।

এ সময় আহাত, রুপক ও নয়ন আহত হন। বিষয়টি সমাধানের জন্য দুই গ্রুপের সিনিয়র নেতারা বিকেল ৫টার দিকে হলের গেস্টরুমে বসলে ওই সময় সিএফসি ও বিজয় গ্রুপের মধ্যে ফের মারামারি হয়।

এ সময় ইমরান ও প্রান্ত আহত হন। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এরপর প্রক্টরের সহযোগিতায় হলের কয়েকটি কক্ষে তল্লাশি চালানো হয়। তবে আপত্তিকর কিছু পাওয়া যায়নি বলে পুলিশ জানায়।

এ বিষয়ে ফজলে রাব্বি সুজন বলেন, ‘কারো ব্যক্তিগত সমস্যার দায়ভার আমরা নেব না। তবে এ বিষয়ে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।’

প্রক্টর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী বলেন, সকালে খেলা দেখাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের কয়েকজন কর্মীর মধ্যে মারামারি হয়েছে। এ ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়েছে। এতে জড়িতদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আসন্ন ভর্তি পরীক্ষার আগে এমন ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভর্তি পরীক্ষা সামনে রেখে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই

Share With Friends!

সর্বাধিক পঠিত