Exim Bank
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৯ জুন, ২০১৮
Advertisement

ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার সহযোগী পরিবহন শ্রমিকরাও

 নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫০, ১৩ জুন ২০১৮

৮০ বার পঠিত

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

স্বজনদের সঙ্গে ঈদ আনন্দে অংশ নিতে রাজধানী ছাড়তে শুরু করেছেন নগরবাসী। ঈদে যাত্রীদের নিরাপদে ও নির্বিঘ্নে বাড়ি পৌঁছাতে পুলিশের সঙ্গে কাজ করছে পরিবহন মালিক-শ্রমিক।

বুধবার সকালে আন্তঃজেলা বাসটার্মিনাল সায়দাবাদ পরিদর্শন শেষে এ কথা বলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে’র (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। এ সময় তিনি সবাইকে আগাম ঈদ শুভেচ্ছা জানান।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, উৎসবমুখর ও নিরাপদ পরিবেশে নগরবাসী ঈদ উদযাপনের জন্য বাড়ি যাচ্ছেন। আপনাদের নিরাপত্তা দিতে ২৪ ঘণ্টা তৎপর রয়েছে ডিএমপি’র প্রতিটি সদস্য। ঈদকে ঘিরে টহল ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। অজ্ঞানপার্টি, মলমপার্টি, টানাপার্টি ও ছিনতাইাকারীদের বিরেুদ্ধে ডিএিমপি কঠোর অবস্থানে রয়েছে। অপরাধীদের ধরতে নিয়মিত অভিযান চালানো হচ্ছে।

টিকেটের অধিক মূল্যের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে কমিশনার বলেন, পরিবহন মালিকদের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা অতিরিক্ত ভাড়া নেবে না বলে নিশ্চয়তা দিয়েছে। কালোবাজারিদের ধরতে আমরা কাজ করছি।

নগরবাসী বাড়ি থেকে ফেরার আগ পর্যন্ত মহানগরের নিরাপত্তার বিষয়ে ডেইলি বাংলাদেশের এক প্রশ্নে কমিশনার আরো বলেন, সবার সহযোগীতায় ডিএমপি একটি সমন্বিত নিরাপত্তা ব্যবস্থা দিয়ে যাবে। ঈদে তালাবন্ধ বাসা-বাড়ি, অফিস ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় নিজস্ব সিকিউরিটিগার্ড রাখতে সবার প্রতি আহ্বান জানান। সিকিউরিটিগার্ডের সঙ্গে সমন্বয় করে পুলিশ নিরাপত্তা দেবে।
এর আগে ডিএমপি কমিশনার সায়দাবাদ টার্মিনালে এসেই বিভিন্ন বাস কাউন্টার পরিদর্শন করে যাত্রীদের পুরো সেবা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেন। তিনি বিভিন্ন গাড়িতে উঠে যাত্রী ও চালকের সঙ্গে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে কথা বলেন। এ সময় ট্রাফিক নির্দেশনামূলক লিফলেট বিতরণ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মীর রেজাউল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশন) কৃষ্ণ পদ রায়, যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক দক্ষিণ) মফিজ উদ্দিন আহমেদ, ট্রাফিক ও ক্রাইম বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তার এবং শ্রমিক ইউনিয়ন ও মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এমআরকে

সর্বাধিক পঠিত