Alexa গোরক্ষার নামে মুসলিম হত্যা: ১১ জনের যাবজ্জীবন

ঢাকা, বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ২ ১৪২৬,   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪০

গোরক্ষার নামে মুসলিম হত্যা: ১১ জনের যাবজ্জীবন

 প্রকাশিত: ১২:১৪ ২৩ মার্চ ২০১৮  

ঝাড়খন্ডের রামগড়ে গতবছর জুনে গরুর গোস্ত নিয়ে যাওয়ায় এভাবেই পিটিয়ে হত্যা করা হয় সংখ্যালঘু আলিমুদ্দিন আনসারিকে। ফাইল ফটো

ঝাড়খন্ডের রামগড়ে গতবছর জুনে গরুর গোস্ত নিয়ে যাওয়ায় এভাবেই পিটিয়ে হত্যা করা হয় সংখ্যালঘু আলিমুদ্দিন আনসারিকে। ফাইল ফটো

ভারতের ঝাড়খন্ডে `গোরক্ষা`র নামে গণপিটুনিতে একজনকে হত্যার দায়ে বিজেপির এক নেতাসহ ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার রামগড়ের ফার্স্ট ট্র্যাক কোর্ট আদালত ওই সাজা ঘোষণা করেছেন।

এর আগে বিচারপতি ওম প্রকাশের আদালত এ ব্যাপারে গত ১৬ মার্চ অভিযুক্ত ব্যক্তিদের ১৪৭/১৪৮/১৪৯/৪২৭/৪৩৫/৩০২ ধারা অনুসারে দোষী সাব্যস্ত করেছিল।

২০১৭ সালের ২৯ জুন আলিমুদ্দিন আনসারি নামের এক ব্যক্তিকে গরুর গোশত বহন করার সন্দেহে গোরক্ষকরা গণপিটুনিতে হত্যা করেছিল। আদালত এটিকে পরিকল্পিত হত্যা বলে অভিহিত করেছেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন সন্তোষ সিং, দীপক মিশ্র, ভিকিশ, সিকন্দর রাম, উত্তম রাম, বিক্রম প্রসাদ, রাজু কুমার, রোহিত ঠাকুর, ছোট্টু ভার্মা, কপিল ঠাকুর এবং স্থানীয় বিজেপি নেতা নিত্যানন্দ মহাতো।

আসামিপক্ষের আইনজীবী ডি এন সিং বলেন, তারা ওই রায়ের বিরুদ্ধে ঝাড়খন্ড হাইকোর্টে আবেদন জানাবেন।

আলিমুদ্দিন আনসারি গাড়িতে করে গরুর গোশত নিয়ে যাচ্ছিলেন সন্দেহে উগ্র হিন্দুত্ববাদী জনতা তার ওপরে হামলা চালায় এবং তার গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আহত আলিমুদ্দিনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তিনি মারা যান।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ