গোপালগঞ্জে জেলা প্রশাসনের তৎপরতায় বাল্য বিয়ে বন্ধ
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=192435 LIMIT 1

ঢাকা, শনিবার   ০৮ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৪ ১৪২৭,   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

গোপালগঞ্জে জেলা প্রশাসনের তৎপরতায় বাল্য বিয়ে বন্ধ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৪৭ ৬ জুলাই ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

গোপালগঞ্জে ভুয়া জন্ম সনদ তৈরি করে আয়োজন করা বাল্যবিবাহ ভেঙ্গে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। এ সময় বিয়ে না দেয়ার জন্য কনের পিতার কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়।

সোমবার দুপুরে এ বিয়ে ভেঙ্গে দেন ডিসি কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক শেখ সালাউদ্দিন দিপু।

তিনি জানান, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার উরফি ইউপির পশ্চিমপাড়া গ্রামের আজিজুর রহমান খান তার মেয়ে মানিকহার উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী সাবিনা খানমের সঙ্গে একই গ্রামের কলিম খাঁর ছেলে মো. আসলামের বিয়ে ঠিক করেন।

এ বিয়ে উপলক্ষে কনের বাবা নিজ বাড়িতে করেন নানা আয়োজন। বরপক্ষ ৩৫ জন বরযাত্রী নিয়ে কনের বাড়িতে আসেন। কিন্তু বিয়ের আগ মুহূর্তে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কনের বাড়িতে গিয়ে হাজির হন নির্বাহী ম্যাজেষ্ট্রেট শেখ সালাউদ্দিন দিপু।

এ সময় তিনি বিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দিলে তাকে দেখানো হয় মেয়ের জন্ম সনদ। পরে তিনি খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন তাকে দেখানো জন্ম সনদটি ভুয়া। এরপর মেয়ে সাবালিকা না হওয়া পযর্ন্ত মেয়ের বিয়ে দিবেন না বলে মুচলেকা নিয়ে বিয়ে ভেঙ্গে দেন তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ