Alexa গৃহবধূকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে মামলা

ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৪ ১৪২৬,   ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪০

গৃহবধূকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে মামলা

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৪:৫২ ১০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৪:৫৬ ১০ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শাহীনুর বেগম নামে এক গৃহবধূকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

আহত গৃহবধূ গত দুই দিন ধরে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। 

এ ঘটনায় নির্যাতিত গৃহবধূর বড় ভাই মো. নাছির উদ্দিন বেপারী বাদি হয়ে বুধবার রাতে পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, আহত গৃহবধূ শাহীনুরের স্বামী উপজেলার ফুলঝুড়ি গ্রামের সোলায়মান শরীফ, দেবর জব্বার শরীফ, রহিম শরীফ, শ্বশুর ফজলুল হক শরীফ ও শাশুড়ি সুফিয়া বেগম।

আহত গৃহবধূ জানায়, ‌মঠবাড়িয়া সদর ইউপির মৃত শাহজাহান বেপারির মেয়ে গার্মেন্টকর্মী শাহীনুর বেগমের সঙ্গে একই উপজেলার ধানীসাফা ইউপ্রি ফুলঝুড়ি গ্রামের ফজলুল হক শরীফের ছেলে সোলায়মান শরীফের সঙ্গে ২০১৭ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর মাসে পারিবারিক সিদ্ধান্তে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই নানা কলহ শুরু করে শ্বশুর বাড়ির লোকজন। প্রায়ই মারধরের শিকার হন।  

শাহিনুর জানায়, বুধবার সকালে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে শাহীনুরকে তার স্বামী বাড়িতে আসতে বলে। শাহীনুর শ্বশুর বাড়িতে আসামাত্রই অকথ্য গালিগালাজ করে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন। তাকে শ্বশুর বাড়িতে গ্রহণ না করার হুমকি দিলে শাহীনুর প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী, শ্বশুর ও দেবর মিলে লাঠি দিয়ে বেদম পিটুনী দিয়ে ঘর থেকে বের করে। 

একপর্যায় তার দেবর জব্বার শরীফ ও রহীম শরীফ মিলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও গলায় ফাঁস দিয়ে গুরুতর জখম করে। এতে  শাহীনুরের ডান ও বামহাতের কবজি, ডান পা কেটে যায় ও গলায় জখম হয়। এসময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আহত গৃহবধূকে উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।  

আহত গৃহবধূর ভাই মামলার বাদি মো. নাছির উদ্দিন বেপারী অভিযোগ করেন, বিয়ের পর থেকেই আমার বোনের ওপর তার শ্বশুরবাড়ির লোজকন শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে। তাকে স্বামীর সংসার থেকে তাড়িয়ে দিয়ে পিটিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার এসআই মো. শওকত হোসেন বলেন, আহত গৃহবধূর ভাই বাদি হয়ে পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযুক্তরা ঘটনার পর থেকে পলাতক। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে